আজিজুল ইসলাম বারী,লালমনিরহাট থেকে: বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) এর মাঝে সৌহার্দ্য, সম্প্রীতি, ভাতৃত্ববোধ বজায় রেখে বিরাজমান সুসম্পর্ক আরও বৃদ্ধি ও সীমান্ত ব্যবস্থাপনাকে আরও উন্নত করতে লালমনিরহাট সীমান্তে দুই দিন ব্যাপী যৌথ মহড়া শেষে ২৬ অক্টোবর বিকেলে ভারতের অভ্যন্তরে কোচবিহার জেলার চ্যাংড়াবান্ধায়- ৬১ বিএসএফ বিওপি ক্যাম্প ও চ্যাংড়াবান্ধা স্থলবন্দর সংলগ্ন এলাকায় যৌথ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্টিত হয়।

এতে ভারতের জলপাইগুড়ি বিএসএফ সেক্টর কমান্ডার ডিআইজি বিসান সিং প্যাটেল,নোডাল অফিসার জর্জ মঞ্জুরান ও বাংলাদেশের রংপুর বিজিবি সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল আবুল কালাম আজাদ,লে:কর্নেল হাসান মোর্শেদ ও লালমনিরহাট ১৫ বিজিবির অধিনায়ক লে.কর্ণেল গোলাম মোর্শেদ উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয় , দুদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী সীমান্তের জিরো পয়েন্ট এলাকায় যৌথ পিলার পরিদর্শন ও কোম্পানী কমান্ডার পর্যায়ে যৌথ পতাকা বৈঠক মহড়া অনুষ্টিত হয়। এছাড়া তারা বন্দর এলাকায় যৌথভাবে পন্যপরিবহন ও যাত্রীদের ব্যাগ তল্লাশি মহড়ায় অংশগ্রহন করে। সীমান্ত হত্যা প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বিএসএফ কর্মকর্তা দাবী করে বলেন , পূর্বের তুলনায় সীমান্তে এ ধরনের ঘটনা অনেকটা কমেছে। উভয় দেশের কর্মকর্তারা সংবাদ সম্মেলনে আশা প্রকাশ করে করেন, এ ধরনের যৌথ মহড়ার মাধ্যমে সীমান্তের সব সমস্যা দূর করা যাবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য