ফুলবাড়ী সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের পার্বতীপুরে এক স্কুল ছাত্রকে ডেকে নিয়ে হত্যার ঘটনায় দুই জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। নিহত ছাত্রের নাম মিন্টু চন্দ্র রায় (১৪)। সে বেলাইচন্ডী ইউনিয়নের বাঘাচোরা বৈরাগীপাড়ার গিরিন চন্দ্র রায়ের পুত্র ও স্থানীয় আমনতুল্যা উচ্চবিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর ছাত্র।

জানা যায়, গত রোববার সকালে তাকে কাজের জন্য স্থানীয় বাঘাচোরা দেউল পাড়া গ্রামের মৃত গেন্দু হাজীর পুত্র ফহির মুন্সি মোটরসাইকেলে মিন্টু ও হরিদাস কে নিয়ে যায়। এরপর মিন্টুর কোন খোঁজ মেলেনি।

অবশেষে দুইদিন পর গত মঙ্গলবার দুপুরে বেলাইচন্ডীর গাওচুলকার বিলে কচুুরিপানার মধ্যে ভাসমান অবস্থায় মিন্টুর লাশ পাওয়া যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে লাশ উদ্ধার করে বিকেলে ময়না তদন্তের জন্য দিনাজপুর মর্গে পাঠায়। নিহত মিন্টুর মুখের উপরের ৪টি দাঁত ভাঙ্গা ছিল।

রাত ১১টায় নিহতের পিতা বাদী হয়ে ফহির মুন্সি, হরিদাস চন্দ্র দাস সহ অজ্ঞাতনামা ৪/৫ জনকে আসামি করে পার্বতীপুর মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

এ ব্যাপারে পুলিশ হরিদাস চন্দ্র দাস (২০) ও জানকি মহন্ত (২৪) নামে ২ ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে। বুধবার সকালে হরিদাস কে আদালতে পাঠানো হয় এবং জানকি কে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। ফহির মুন্সি দেউলপাড়া মাদ্রাসার সুপার এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য