চলচ্চিত্র ক্যারিয়ারের বয়স প্রায় আড়াই বছর। এই অল্প সময়ে যৌথ প্রযোজনার পাঁচটি বড় বাজেটের ছবি মুক্তি পেয়েছে তার। ছবিগুলো মুক্তির পর বাংলাদেশ ও ভারতে বেশ সাড়া পান তিনি। তিনি মডেল-অভিনেত্রী নুসরাত ফারিয়া। ২০১৫ সালে বড় পর্দায় অভিষেক হয় এই অভিনেত্রীর। অশোক পাতির ‘আশিকী’ ছবিতে কলকাতার অভিনেতা অঙ্কুশের বিপরীতে অভিনয় করেন।

এরপর ‘হিরো ৪২০’, ধেৎতেরিকি’, ‘প্রেমী ও প্রেমী’, ‘বস টু’ ছবিগুলো মুক্তি পায় তার। এসব ছবিতে তার বিপরীতে কলকাতার অভিনেতা জিৎ, ওম এবং বাংলাদেশের আরিফিন শুভ অভিনয় করেন। বর্তমানে নতুন একটি ছবির কাজ করছেন তিনি। ছবির নাম ‘ইন্সপেক্টর নটি.কে’। এ ছবিতে কলকাতার জনপ্রিয় মুখ জিতের বিপরীতে অভিনয় করছেন তিনি।

এরইমধ্যে ইতালি ও ভারতের বিভিন্ন জায়গায় এর শুটিং হয়েছে। এ ছবিটি করার পর নতুন ছবির বিষয়ে জানতে চাইলে ফারিয়া বলেন, বছরে ভালো ছবি একটিই যথেষ্ট বলে মনে করি আমি। তাই বছরে একটির বেশি ছবিতে কাজ করার ইচ্ছাও তেমন নেই। এটা আমার সিদ্ধান্তও বলতে পারেন। আমি ‘ইন্সপেক্টর নটি.কে’ ছবিটি নিয়ে বেশ আশাবাদী।

এ ছবিতে আমাকে পুলিশের চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে। চরিত্রের নাম সামিরা। প্রথমবার এমন চরিত্রে দর্শকের সামনে হাজির হব। ছবির ৮০ ভাগ কাজ এরইমধ্যে শেষ হয়েছে। খুব শিগগিরই বাকি কাজ শুরু হবে। এ ছবিটি পরিচালনা করছেন আমার প্রথম ছবির পরিচালক অশোক পাতি। অনেক দিন পর ওনার টিমের সঙ্গে কাজ করে বেশ ভালো লেগেছে। আর জিৎ দাদা তো অসাধারণ একজন মানুষ।

কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেতা জিৎ এর সঙ্গে এর আগে ‘বাদশা’ ও ‘বস টু’ ছবিতে অভিনয় করা হয়েছে ফারিয়ার। এটা তাদর অভিনীত তৃতীয় ছবি। সবশেষ গত রমজানের ঈদে জিৎ-ফারিয়ার ‘বস টু’ ছবিটি বাংলাদেশ ও ভারতে মুক্তির পর বেশ ভালো সাড়া পেয়েছেন বলে জানালেন ফারিয়া। ‘বস টু’ ছবিটি পরিচালনা করেন ভারতের পরিচালক বাবা যাদব।

প্রত্যেক অভিনেত্রী আলাদা আলাদা চরিত্রে বিভিন্ন ছবিতে অভিনয় করতে পছন্দ করেন। দর্শকের হৃদয়ে যুগ যুগ বাঁচিয়ে রাখবে তেমনই কিছু চরিত্রের সন্ধানে রয়েছেন ফারিয়া। এবং তার বিশ্বাস খুব শিগগিরই নতুন একটি ছবিতে এমন চরিত্রের সন্ধান পাবেন তিনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য