একজন শিশুশিল্পী হিসেবেই তমালিকা কর্মকার সর্বশেষ বাংলাদেশ বেতারে অভিনয় করেছিলেন আজ থেকে ত্রিশ বছর আগে। এরপর তিনি ব্যস্ত হয়ে ওঠেন মঞ্চ এবং টিভি নাটকে। তমালিকা দাপুটে অভিনয়ে একই সময়ে সমানতালে ব্যস্ততায় কাটিয়েছেন মঞ্চ ও টিভি নাটকে।

পাশাপাশি বেশ কিছু ভালো চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছিলেন তিনি। চলচ্চিত্রে অভিনয় করে তমালিকা পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও। মঞ্চ, টিভি এবং চলচ্চিত্রে অভিনয়ের কারণে বেতারে অভিনয়ের বেশি সময়ই পাননি এ অভিনেত্রী।

দীর্ঘ ত্রিশ বছর পর তিনি বাংলাদেশ বেতারের একটি ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করছেন। অধ্যাপক তারেক মঞ্জুরের রচনা ও সৈয়দা ফরিদা ফেরদৌসী যাত্রীর প্রযোজনায় এ নাটকটির নাম ‘রেবা ও তার বিড়াল’। ৫৬ পর্বের এই ধারাবাহিকের রেকর্ডিং-এ গেলো সপ্তাহেই অংশ নিয়েছেন তমালিকা।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ত্রিশ বছর পর বেতারের নাটকে অভিনয় করতে গিয়ে অনেক আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছিলাম। কত যে স্মৃতি মনে পড়ছিল ছোটবেলার ফেলে আসা সেসব দিনের। আন্তরিক কৃতজ্ঞ যারা আবারো বেতারের নাটকে কাজ করার জন্য আমাকে আগ্রহ নিয়ে ডেকেছেন।

আমি কাজটি করে খুব আনন্দিত, উৎসাহিত। বেতারের শ্রোতাদের নাটকটি শোনার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ রইলো। নাটকটির প্রযোজক যাত্রী জানান, আগামি মাসেই এটি বেতারে প্রচার শুরু হবে। মোবাইলেও শোনা যাবে ১০৬এফএম-এ।

প্রতি পর্বে পনেরো মিনিট ব্যাপ্তির এই নাটকটি প্রতি শনিবার সকাল ৯টা ৪৫ মিনিটে প্রচার হবে। এদিকে আগামীকাল থেকে শুরু হতে যাওয়া আরণ্যক নাট্যদলের ৪৫ বছর পুর্তিতে ‘পুষ্প ও মঙ্গল আন্তর্জাতিক নাট্যোৎসব’-এ তমালিকা মামুনুর রশীদ রচিত ও নির্দেশিত ‘রাঢ়াং’ এবং মান্নান হীরা রচিত ও মামুনুর রশীদ নির্দেশিত ‘ময়ূর সিংহাসন’ নাটকে অভিনয় করবেন। ‘রাঢ়াং’-এর কোরিওগ্রাফি তমালিকা নিজেই করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য