মোঃ জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) থেকেঃ নীলফামারীর সৈয়দপুরে পচানালা খালের জায়গা দখল নিয়ে পাল্টা পাল্টি অভিযোগ উঠেছে। দখলদারকে সর্তকি করন নোটিশ জারি করেছে পাউবো কর্তৃপক্ষ। অভিযোগ অস্বীকার করেছে জমির মালিক মিন্টু।

জানা যায়, সৈয়দপুর শহর ও টার্মিনাল সড়কের উপড় পচা নালা খালের ডান পাশে জমি কিনে সীমানা প্রাচীর দিয়ে পাকা বিল্ডিং নির্মাণ কাজ শুরু করেন ব্যবসায়ী আলহাজ্ব শেখ আলিম ওরফে মিন্টু। এতে বাদ সাধেন সৈয়দপুর পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) কর্তৃপক্ষ। তারা জায়গাটি নিজের দাবী করে ৭ দিনের মধ্যে তাদের জায়গা থেকে স্থাপনা সরিয়ে নেয়ার নোটিশ জারি করেন গত ১১ অক্টোবর। স্মারক নং- আই-৭৫/২২৫৬।

পাউবোর নোটিশ সূত্রে জানা যায়, পঁচা নালা খালের ৩০ ফিট ডাউনে ডান ডাইকের ইনার স্লোভ এ এবং আউটার স্লোভে এ ১৫০-২০০ ফিট পিলার দিয়ে পাকা স্থায়ী প্রাচীর নির্মাণ করা হয়েছে। এটি পানি উন্নয়ন বোর্ডের সম্পত্তি। এর ফলে পঁচানালা খালের পানি প্রবাহে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হবে। বন্যা মৌসুমে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হবে। এতে করে বাধ মেরামতের কাজে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি হবে।

এব্যাপারে ব্যবসায়ী আলহাজ্ব শেখ আলিম ওরফে মিন্টু বলেন, আমি সরকারী জায়গা দখল করিনি। স্থানীয় ভুমি অফিস ও পৌর সভার নকশা মোতাবেক স্থায়ী সীমানা প্রাচীর নির্মান করেছি। পচানালা খালটি সৈয়দপুরের প্রাণ। আমি নিজেও চাই কেহ যেন এই খালটি দখল করতে না পারে। আমি সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করার সময় পঁচানালা খালের বেশ কিছু ভেঙ্গে যাওয়া অংশ মেরামত করে দিয়েছি নিজের অর্থে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য