এশিয়ায় চীনের বাড়তে থাকা প্রভাবের মুখে যুক্তরাষ্ট্র ভারতের সঙ্গে সহযোগিতা গভীর করে তুলতে চায় বলে জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন।

বিবিসি জানিয়েছে, ভারতকে তিনি একটি ‘কৌশলগত সম্পর্কের অংশীদার’ অভিহিত করে বলেছেন, “গণতান্ত্রিক সমাজ না থাকায় চীনের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের কখনোই এমন সম্পর্ক হবে না।”

বেইজিং কখনো কখনো আন্তর্জাতিক নিয়মাবলীর বাইরে গিয়েও কাজ করে বলে মন্তব্য করেছেন টিলারসন; এ প্রসঙ্গে উদাহরণ হিসেবে দক্ষিণ চীন সাগরের বিরোধের কথা উল্লেখ করেন তিনি।

বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটনে সেন্টার ফর স্ট্র্যাটেজিক এন্ড ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজের এক সম্মেলনে টিলারসন এসব কথা বলেন। এক সফরে আগামী সপ্তাহে তার ভারতে যাওয়ার কথা রয়েছে।

অপরদিকে নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চীনসহ এশিয়ার একাধিক দেশ সফর করবেন।

সম্মেলনে টিলারসন বলেন, “চীনের সঙ্গে গঠনমূলক সম্পর্ক চায় যুক্তরাষ্ট্র, কিন্তু আইনের শাসনের প্রতি চীনের চ্যালেঞ্জে এবং প্রতিবেশী দেশের সার্বভৌমত্ব অবজ্ঞা করে যুক্তরাষ্ট্র ও তার বন্ধুদের বেকায়দায় ফেললেও আমরা চুপসে যাবো না।”

যুক্তরাষ্ট্র ও ভারত ‘ক্রমাগতভাবে বৈশ্বিক অংশীদার’ হয়ে উঠছে মন্তব্য করে টিলারসন বলেন, “আমাদের সম্পর্ক শুধু গণতন্ত্রের মধ্যেই আটকে নেই, ভবিষ্যৎত দৃষ্টিভঙ্গীর বিষয়েও আমরা পরস্পরের অংশীদার।”

চীনের কমিউনিস্ট পার্টির কংগ্রেসে দেশটির প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ভাষণ দেওয়ার কয়েক ঘন্টা পরই এসব কথা বলেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। বিশ্বমঞ্চে বেইজিং আরো বড় ভূমিকা পালনের ইচ্ছা রাখে, নিজের ভাষণে এমন ইঙ্গিতই দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট শি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য