দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে সংখ্যালঘু হিন্দু পরিবারের জায়গা জবর দখল করার অভিযোগ থানায় দায়ের হয়েছে। উপজেলার বিনোদনগর ইউনিয়নের গাজীপুর গ্রামের প্রমথ চন্দ্র রায় ওই অভিযোগটি দায়ের করেছে।

অভিযোগে বলা হয়েছে তার বাড়ী সংলগ্ন তার দখল কৃত জমিতে ফসল ও গাছপালা কেটে প্রতিপক্ষরা জবর দখল করে ঘর নির্মান করে। তারা ওই জায়গা দখল করতে থাকলে তাতে বাধা দিতে গিয়ে প্রমথ চন্দ্র রায় ও তার স্ত্রী ভারতী রানী আহত হয়েছে। সস্ত্রীক তারা বর্তমানে দিনাজপুর এম আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

প্রমথ চন্দ্র জানায় প্রতিপক্ষরা তার ওই জায়গা জোর করে দখলের হুমকি দিলে সে গত ১৪ সেপ্টেম্বর দিনাজপুর আদালতে প্রতিপক্ষদের বিরুদ্ধে মামলা আনয়ন করেছে। মামলায় প্রতিপক্ষরা জায়গা পেলে সে তা ছেড়ে দিতে প্রস্তুত। কিন্তু তার পূর্বে প্রতিপক্ষরা জায়গা দখল করে বেড়া দিয়ে ঘর করছে।

প্রতিপক্ষ একই গ্রামের আজিজার রহমানের ছেলে আঃ ছালাম জানায় তার পিতা ওই মৌজার ২২৮ নং দাগে ১.৩২ শতক জমির মধ্যে ১৯৭৪ সালে ১০ শতক ও ১৯৯২ সালে ৩৮ শতক জমি ক্রয় করে। একাধিক বার শালিস বৈঠক হলেও বাদী জায়গা ছাড়তে রাজী হয়না। তাদের জায়গা তারা দখল করেছে।

জায়গা দখল করতে গিয়ে বাদী পক্ষের হামলায় সে সহ তার পরিবারের ৪ জন আহত হয়েছে। নবাবগঞ্জ থানার ওসি সুব্রত কুমার সরকার জানান ওই ঘটনায় একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে এবং ঘটনাটি মিমাংসার জন্য উভয় পক্ষকে থানায় ডাকা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য