গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ৬ জুয়াড়ির ১০ দিন করে জেল দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সহকারী কমিশনার (ভূমি) সামিউল আমিন এ আদেশ দেন।

সুন্দরগঞ্জ ও পার্শ্ববতী উপজেলা উলিপুর সীমান্ত এলাকায় দুর্গম চলাঞ্চলে দীর্ঘদিন থেকে এক শ্রেণির অসামাজিক লোক অশ্লীল নিত্যর আয়োজন করে জুয়াড় আসর বসিয়ে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিতেন।

এতে সামাজিক অবক্ষয় বৃদ্ধি পাওয়ায় যুব সমাজ ধ্বংসের দ্বার প্রান্তে পৌঁছেছে। এরই মধ্যে চরাঞ্চলের কিছু সমাজ সেবকের অভিযোগের ভিত্তিতে গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাতে সুন্দরগঞ্জ ও উলিপুর থানার পুলিশ যৌথভাবে অভিযান চালায়। অভিযানকালে সুন্দরগঞ্জ থানা পুলিশ ৬ জুয়াড়িকে গ্রেফতার করে।

আজ বুধবার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) ভ্রাম্যমান আদালতে ০৬ জয়াড়ির প্রত্যেককে ১০ দিন করে বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন।

সাজাপ্রাপ্ত জুয়াড়িরা হলেন-সুন্দরগঞ্জ উপজেলার চর খোর্দ্দা গ্রামের মৃত কফিল উদ্দিনের ছেলে জহুরুল ইসলাম, পীরগাছা উপজেলার নজরমামুদ গ্রামের অনিল চন্দ্রের ছেলে কমল চন্দ্র বর্মন, দোয়ানী মনিরাম গ্রামের নুরুল আমিনের ছেলে সোহাগ, কাবিল উদ্দিনের ছেলে মবদেল মিয়া, নুরুজ্জামানের ছেলে মোফাজ্জল হোসেন ও আদম গণেশ খামার গ্রামের আব্দুল গফুরের ছেলে আশাদুল।

থানার ওসি জানান, দন্ডপ্রাপ্ত জুুয়াড়িদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য