ছবি সংগ্রহিত

আজিজুল ইসলাম বারী,লালমনিরহাট থেকে: লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলায় বহুল আলোচিত ব্লু হোয়েল (নীল তিমি) আত্মঘাতী খেলায় আসক্ত এক ছাত্রের সন্ধান মিলেছে। ৪১ ধাপ খেলার পর ওই শিক্ষার্থীর আচার- আচরণে সাংঘাতিক পরিবর্তন ধরা পড়ায় বর্তমানে গোপনে তার চিকিৎসা চলছে।

জানাগেছে, উপজেলার ধবলসুতি উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির মানবিক বিভাগের ছাত্র শাহিনুর রহমান (১৪) গত ০১ মাস হতে ব্লু হোয়েল গেম খেলায় আসক্ত হয়ে পড়ে। সোমবার (১৬ অক্টোবর) নবম শ্রেণির বাংলা ক্লাস চলার সময় ছাত্রটির আচরণ কথা- বার্তা প্রবল সন্দেহ জনক হওয়ায় ওই শ্রেণির বাংলা শিক্ষক আবু তাহের শিক্ষার্থীকে একান্তে জিজ্ঞাসা করলে প্রথমার্ধে স্বীকার না করলেও ছাত্রের শরীরের বিভিন্ন জায়গায় কাটা ক্ষত দেখে জিজ্ঞেস করার একপর্যায়ে সে ব্লু হোয়েল গেম খেলার ঘটনা স্বীকার করে।

একাধিক শিক্ষক জানান, শাহিনুরের ক্লাসে অমনোযোগী, কথা- বার্তা অসংলগ্ন, হতাশা লক্ষ্য করে নানা ধরণের চাপ দিয়ে গভীরভাবে জিজ্ঞেস করলে সে স্বীকার করে গত ১ মাস ধরে গেম ব্লু হোয়েল খেলে আসছে। আজ পর্যন্ত ৪১ ধাপ পর্যন্ত খেলছে।

বর্তমানে সে একা থাকতে নিজেতে আঘাত পেতে, গভীর রাতে উচু স্থানে যেতে ভাল লাগে বলে জানিয়েছে। গেমের নির্দেশনানুযায়ী সে ব্লেড দিয়ে শরীরে গভীরভাবে কেটেছে। বিভিন্ন দাগ এঁকেছে।

ধবলসুতি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তহিদুল ইসলাম তার বিদ্যালয়ের ছাত্র ব্লু হোয়েল গেম খেলায় আসক্তের ঘটনা স্বীকার করে জানান, আমরা তাৎক্ষনিক বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে জানিয়েছে। শিক্ষার্থীর অভিভাবককেও ঘটনা জানিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করতে বলেছি। পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর কুতুবুল আলম বলেন, ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিষয়টি জানিয়েছে। শিক্ষার্থীকে লক্ষ্য রেখে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেয়ার জন্য বলা হয়েছে। প্রকৃত ঘটনা তদন্ত করে দেখা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য