মাসুদ রানা পলক, ঠাকুরগাঁও থেকেঃ ঠাকুরগাঁওয়ে নাজমিন আক্তার (১৪) নামে এক স্কুল ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে পরিবারের দাবি এটি হত্যাকান্ড।

রোববার সকালে সালন্দর ইউনিয়ন বরূনাগাও বাশিঁয়া দেবি ফকির পারা সেনুয়া নদীর পাড়ের একটি গাছ থেকে তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নাজমিন আক্তার (১৪) সদর উপজেলার বাসিয়াদেবী ফকিরপাড়া গ্রামের নুর নবী’র মেয়ে। সে সালন্দর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী।

নাজমিনের বাবা নুর নবী জানান, শনিবার বিকেলে নাজমিন সেনুয়া নদীর পাড়ে ধান ক্ষেত দেখতে যায়। এর পর আর বাড়ি ফেরেনি। সকালে ওই নদীর পাড়ে একটি গাছে ঝুলন্ত মরদেহ দেখা যায়। এটি হত্যাকান্ড হতে পারে বলে অভিযোগ করেন নাজমিনের বাবা নুর নবীর। পরে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে।

সদর থানার ওসি (অপারেশন) কফিল উদ্দিন বলেন, ময়না তদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর কারন জানা যাবে বলে জানান তিনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য