আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার একই পরিবারের দুই জনকে খুন মামলার বাদীকে হত্যার হুমকি দিয়েছে আসামিরা। বাদীকে হত্যার চেষ্টা মামলায় বুধবার জামিনে মুক্ত হয়ে এসে আসামিরা ফের প্রকাশ্য দিবালোকে হত্যার হুমকি দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

২০১০ সালের ২৮ফেব্রয়ারী উপজেলার বামনডাঙ্গা মনমথ রায়পাড়া গ্রামের প্রফুল্ল চন্দ্র রায় ও তার ছেলে পরিমল চন্দ্র রায়কে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে প্রতিবেশি শশী চন্দ্র রায় ও তার লোকজন খুন করে । এ নিয়ে প্রফুল্ল চন্দ্র রায়ের অপর ছেলে বিপুল চন্দ্র রায় থানায় হত্যা মামলা করে ।

মামলায় শশী চন্দ্র রায় হত্যার দ্বায় স্বীকার করায় বর্তমানে জেল হাজতে রয়েছে। এরপরও থেমে থাকেনি শশী চন্দ্রের পরিবার । হত্যার দায়ে শশী চন্দ্রের জেল হয়ে যাওয়ায় ২০১১ সালের ২৭ অক্টোবর শশীর ভাই বাশি কান্ত হত্যা মামলার বাদী বিপুল চন্দ্রসহ ৭ জনকে আসামি করে থানায় একটি শিশু হত্যা মামলা দায়ের করে । তদন্তে মামলাটি মিথ্যা প্রমানিত হওয়ায় আসামিরা জামিনে খালাস পায়।

এরপর আবারও চলতি বছরের ২ জুলাই শশী চন্দ্রের ভাই কাশি চন্দ্র হত্যা মামলার বাদী বিপুল চন্দ্র রায়সহ ৭ জনকে আসামি করে একটি হয়রানি মুলক মামলা করে। মামলায় আসামিরা জামিনে মুক্ত হয়ে বাড়ীতে আসার পর থেকে ফের শশী চন্দ্রের পরিবারের সদস্যরা হয়রানি শুরু করে।

এমনকি বিপুল চন্দ্রের পরিবারকে ঘায়েল করার পথ খুঁজতে থাকে। এরই এক পর্যায়ে গত ২০ সেপ্টেম্বর শশী চন্দ্রের পরিবারের লোকজন বিপুল চন্দ্রকে হত্যার উদ্দেশে বেদম মারপিট করে গুরত্বর জখম করে। এনিয়ে বিপুল চন্দ্র বাদী হয়ে ৪ অক্টোবর থানায় ৯ জনকে আসামি করে একটি মামলা করে।

আসামিরা জামিনে মুক্ত হয়ে এসে বিপুলসহ তার পরিবারের সদস্যদের বার বার হত্যার হুমকি দিয়ে আসছে। বর্তমানে পরিবারটি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। মামলা তদন্তকারি কর্মকতা এস আই জিয়ারুল হক জানান, বিষয়টি আমি জেনেছি । মামলাটি তদন্তাধিন রয়েছে। তার পরও এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য