ইরানের পরমাণু সমঝোতা বা জেসিপিওএ থেকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সরে গেলে আন্তর্জাতিক সমাজের কাছে এই বার্তাই দেয়া হবে যে চুক্তির ক্ষেত্রে ওয়াশিংটনের ওপর আস্থা রাখা যায় না। এ কথা বলেছেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের বৈদেশিক নীতি বিষয়ক প্রধান ফেডেরিকা মোগেরিনি।

গতকাল বুধবার পিবিএস চ্যানেলকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ২০‌১৫ সালে ছয় জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে সাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতা ইরান পুরোপুরি মেনে চলছে। মোগেরিনি বলেন, পরমাণু সমঝোত পরিপূর্ণভাবে বাস্তবায়নের ব্যাপারে আন্তর্জাতিক সমাজ শক্ত অবস্থানে রয়েছে।

তিনি বলেন, যেখানে একটি সমঝোতা হয়েছে, যেটি কাজ করছে, বাস্তবায়িত হচ্ছে সেটাকে নস্যাত করে দেয়ার চেষ্টাটাই হচ্ছে সবচেয়ে খারাপ কাজ। আপনি অন্যকে এই বার্তাই দিচ্ছেন যে আমরা যে চুক্তি করেছি তার কোনো মূল্য নেই। এর মাধ্যমে আমেরিকা গোটা বিশ্বের কাছে এই বার্তাই দিচ্ছে যে তার ওপর কোনো আস্থা রাখা যায় না।

ইইউ’র এ কূটনীতিক আরো বলেন, পরমাণু সমঝোতা থেকে আমেরিকা সরে গেলে ওয়াশিংটন বিশ্বের আস্থা হারাবে। তিনি বলেন, গত দুই বছর আগে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে সর্বসম্মতভাবে যে সমঝোতা পাস হয়েছিল তাতে আমেরিকাও ভোট দিয়েছিল। সেই আমেরিকাই আবার সেই সমঝোত থেকে তার সমর্থন তুলে নিচ্ছে!

মোগেরিনি বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প পরমাণু সমঝোতা থেকে তার সমর্থন তুলে নিলেও ইউ এবং অন্যান্য মার্কিন মিত্রদেশগুলো এ সমঝোতার প্রতি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ থাকবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য