মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও উগ্র বৌদ্ধদের নির্যাতনের মুখে রাখাইন রাজ্য থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে আসার পথে নাফ নদীতে আবারো রোহিঙ্গাবোঝাই নৌকাডুবির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত নারী-শিশুসহ ১২ জনের মরদেহ উদ্ধার করেছে করা হয়েছে।

জীবিত উদ্ধার হওয়া রোহিঙ্গারা জানিয়েছেন, গতকাল (রোববার) রাত ৯টার দিকে কক্সবাজার জেলার টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপের ঘোলারচর এলাকায় উত্তাল সাগরে প্রবল ঢেউয়ের ধাক্কায় এ নৌকা ডুবির ঘটনা ঘটে। রাখাইন রাজ্যের নাইক্ষ্যংদিয়া থেকে প্রায় ৪০ জন রোহিঙ্গা নৌকায় ছিলেন। তাদের চিৎকারে বিষয়টি বিজিবির টহল দলের নজরে আসে। পরে তাদের তৎপরতায় ১২ জনকে জীবিত ও ১২ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

টেকনাফ ২ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল এস এম আরিফুল ইসলাম জানান, নৌকাডুবির ঘটনায় বিজিবির টহল দল এখন পর্যন্ত নারী-শিশুসহ ১২ জনের মরদেহ উদ্ধার হয়েছে। জীবিত উদ্ধার হয়েছে ১২ রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ ও শিশু। তবে এখনও অনেকেই নিখোঁজ রয়েছেন দাবি করেছেন উদ্ধার হওয়াদের নৌকার যাত্রীরা।

এর আগে বৃহস্পতিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) টেকনাফের উখিয়ার ইনানী সৈকতের কাছে সাগরে রোহিঙ্গাবাহী নৌকাডুবির ঘটনায় ২০ জন মারা যান। গত ২৯ আগস্ট থেকে গতকাল রাত পর্যন্ত নাফ নদী এবং সাগরে রোহিঙ্গাবাহী মোট ২৫টি নৌকাডুবির ঘটনায় ১৩৩ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য