কাউনিয়া উপজেলার হারাগাছ ইউনিয়নের সোনাতন গ্রামে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি নির্বাচন কে কেন্দ্র করে হোসেন আলী (১৭) নামের এক যুবক প্রতিপক্ষের আঘাতে গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে মৃত্যু যন্ত্রনায় কাতরাচ্ছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত শুক্রবার রাতে।

থানা ও পারিবারিক সূত্রে জানাগেছে সোনাতন পূর্বপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি নির্বাচন কে কেন্দ্র করে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সোনাতন পূর্বপাড়া গ্রামের মৃত দুলাল মিয়ার পুত্র হোসেন আলীকে গত শুক্রবার রাতে কুটিরপাড় বাজার থেকে একা বাড়ি ফেরার পথে কুড়ারপাড় নামক স্থানে একরামুলগং রড দিয়ে তাকে মাথায়, হাটুতেসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাথারি মারগাং শুরু করে।

হোসেনের আত্মচিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে একরামূলগং পালিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে কাউনিয়া মেডিকেলে ভর্তি করা হয়। হোসেনের মা হোসনে আরা জানান তার ছেলের অপরাধ সে নির্বাচনে একরামুলের প্রতিদ্বন্দ্বি তাজুল ইসলামের পোষ্টার লাগানোর কাজ করে ছিল।

কাউনিয়া মেডিকেলে ডাক্তার গোলাম রাব্বানী জানান রোগীর মাথায় ও হাটুতে মারগাংএর ফোলা চিহ্ন আছে। হোসেনর মা বাদী হয়ে কাউনিয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। এসআই সাজ্জাদ হোসেন ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য