সিরাজুল ইসলাম (বিজয়), তারাগঞ্জ (রংপুর) থেকেঃ রংপুর তারাগঞ্জ উপজেলায় বাল্য বিবাহ রোধে আইনের প্রয়োগ না থাকায় প্রতিদিন বাল্য বিবাহের শিকার হতে হচ্ছে অপ্রাপ্ত বয়স্ক স্কুলগামী মেয়েদের।

এদিকে সরকার সহ বিভিন্ন ইনজিও বাল্য বিবাহ রোধে নানামুখী কর্মসূচী গ্রহন করলেও বাল্যবিবাহ রোধে তেমন একটা প্রভাব পরছে না।

তারাগঞ্জ উপজেলার ৫ টি ইউনিয়নে নিকাহ্ রেজিস্টার মোটা অংকের বিনিময়ে অল্প বয়স্ক মেয়েদের প্রাপ্ত বয়স্ক দেখিয়ে বিবাহ কর্ম সম্পাদন করছে। বাল্য বিবাহের ফলে নারী নির্যাতন, আত্মহত্যা,স্বামী পরিত্যাক্ত ও বিবাহ বিচ্ছেদের ঘটনা আশংকাজনক হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে।

জানা গেছে,অল্প শিক্ষিত অভিভাবকরা মেয়েদের বিয়ে দিচ্ছে।বিশেষ করে সয়ার ইউনিয়নে বাল্য বিবাহের প্রবণতা আশংকাজনক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। তারাগঞ্জের দিন মজুর অভাবী মানুষ যৌতুক দিতে না পেরে সম্ভম হারানোর ভয়ে বাল্য বিয়ের দিকে ঝুকে পড়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য