আজিজুল ইসলাম বারী,লালমনিরহাট থেকে: নব্য জেএমবির ‘সরওয়ার জাহান-তামিম চৌধুরী’ গ্রুপের সহযোগী নাহিদ হাসানকে (২৫) কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বুধবার বিকেলে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়। লালমনিরহাট পুলিশ সুপার এস.এম রশিদুল হক এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘সরওয়ার জাহান-তামিম চৌধুরী গ্রুপের আইটি সম্পাদক রাকিবের সহযোগী নাহিদ হাসানকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গুরুত্বপূর্ণ কিছু তথ্য পাওয়া গেছে। সেসব তথ্য গুরুত্বের সঙ্গে যাচাই করে দেখা হচ্ছে।’ গত ২৯ আগস্ট হাতীবান্ধায় থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে দায়ের করা (মামলা নম্বর ৩৪) মামলায় নাহিদ হাসানকে বুধবার গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

এর আগে হাতীবান্ধা উপজেলার পূর্বসির্ন্দুনা এলাকা থেকে মঙ্গলবার (৩ অক্টোবর) সন্ধ্যায় নাহিদকে আটক করা হয়। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও ডিবির পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) সিদ্দিকুল ইসলাম বলেন, ‘নাহিদ হাসানকে হাতীবান্ধা থানা পুলিশের সহযোগিতায় ডিবি পুলিশ গ্রেফতার করে লালমনিরহাট নিয়ে আসে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বুধবার বিকেলে লালমনিরহাট অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. আফাজ উদ্দিনের আদালতে সোপর্দ করা হয়। আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন নাহিদ। বিজ্ঞ আদালত তার জামিন না মঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।’

নব্য জেএমবির ‘সরওয়ার জাহান-তামিম চৌধুরি’ গ্রুপের আইটি সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম ওরফে রাকিবকে (২৬) গত ২৯ আগস্ট জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার টংভাঙা এলাকার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে জেলা পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদে রাকিব তার সহযোগী হিসাবে নাহিদ হাসানের নাম প্রকাশ করেন।

নাহিদ হাসান হাতীবান্ধা উপজেলার সির্ন্দনা ইউনিয়নের পূর্বসির্ন্দুনা এলাকার আমিনুর রহমান ও সামসুন্নাহার বেগমের ছেলে। তিনি হাতীবান্ধার স্থানীয় একটি কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য