তৃনমুল পর্যায় থেকে বাল্য বিয়ে, যৌতুক প্রথার ক্ষতিকর দিক ও বর্তমান সময়ে আত্মকর্মসংস্থানের সম্ভাবনাময় ক্ষেত্র সম্পর্কে গণ-সচেতনতা গড়ে তোলার উপরই এসব কর্মসুচির সাফল্য নির্ভর করছে বলে অভিমত ব্যক্ত করেন বৃটিশ পার্লামেন্টের এমপি ডাঃ রোজেনা এলিন খান।

বুধবার (৪ অক্টোবর) দুপুরে দিনাজপুরের পার্বতীপুরে বে-সরকারী সংস্থা ভলান্টিয়ার সার্ভিস ওভারসিস (ভিএসও) এর বৃটিশ সহায়তাপুষ্ট বিভিন্ন কার্যক্রম পরিদর্শন করতে এসে তিনি এসব কথা বলেন।

পার্বতীপুর সফরকালে তিনি উপজেলার মন্মথপুর ইউনিয়নের দেগলাগঞ্জ হাইস্কুল মাঠে স্থাপিত স্বাস্থ্য, শিক্ষা, কম্পিউটার প্রশিক্ষন, পোশাকের উন্নত ডিজাইন তৈরী, শো-পিছ ও চেয়ার তৈরী, ন্যাপকিন সেলার, বাল্য বিয়ে ও যৌতুক সম্পর্কে সচেতনতা সংক্রান্ত বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন করেন।

পরে স্কুল মাঠে আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন-বৃটিশ পার্লামেন্টের এমপি ডাঃ রোজেনা এলিন খান। এতে সভাপতিত্ব করেন ইন্টারন্যাশনাল সিটিজেন সার্ভিস এর প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটর নিলুফা আকতার বানু।

সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তরফদার মাহমুদুর রহমান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহিদা খাতুন, পার্বতীপুর পৌর মেয়র এজেডএম মেনহাজুল হক, পার্বতীপুর ইয়ংস্টার ক্লাবের সভাপতি আমজাদ হোসেন, বে-সরকারী সংস্থা ভলান্টিয়ার সার্ভিস ওভারসিস (ভিএসও) এর প্রকল্প ব্যবস্থাপক তাজিন হোসেন ও ইন্টারন্যাশনাল সিটিজেন সার্ভিস এর প্রকল্প ব্যবস্থাপক মাহাবুবুর রহমান প্রমুখ। সমাবেশ শেষে প্রধান অতিথির সম্মানে ‘বাল্য বিয়ে ও যৌতুক প্রথা’র পরিনতির উপরে লেখা এক নাটিকা প্রদর্শন করা হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য