নীলফামারীর ডোমারে কুকুর কামড়ানো ও অসুস্থ্ গরুর মাংস বিক্রির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার জোড়াবাড়ী ইউনিয়নের ধনঞ্জনপুর বাজারে বেতগাড়া ধনঞ্জনপুরের এলাকাবসীর ব্যানারে এই মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

জামিয়ারের রহমান জামিলের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আজিবর রহমান, মোহম্মদ আরিফ, আইয়ুব আলী ও আবুল হোসেন বক্তব্য রাখেন। এর আগে বেতগাড়া থেকে কুকুর কামড়ানো গরুর মাংস বিক্রির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়ে ধনঞ্জনপুর বাজরে মানববন্ধনে মিলিত হয়।

জানাযায়, উপজেলার জোড়াবাড়ী ইউনিয়নের বেতগাড়া বাবুপাড়া গ্রামের মৃত একরাম আলীর ছেলে গোলাম নুর এর একটি গরুকে গত একমাস পূর্বে কুকুর কামর দেয়। গরুর মালিক গোলামনুর স্থানীয় পশু চিকিৎসক ও উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডাক্তার রাসেদুল হকের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জলাতংক রোগের বিষয় নিশ্চিত করেন। পরে গরুটির কোন চিকিৎসা নাই মর্মে জানিয়ে দিয়ে গরুটিকে ইনজেকসনের মাধ্যমে মেরে ফেলে মাটিতে পুঁতে রাখার পরামর্শ দেন।

গোলাম নুর প্রানি সম্পদ কর্মকর্তার পরামর্শ উপেক্ষা করে গত ২৯ সেপ্টেম্বর শুক্রবার দুপুরে স্থানীয় মাংস বিক্রেতা গুলবাহারের নিকট ৪০ হাজার টাকা দামের গরু মাত্র ৪ হাজার টাকায় বিক্রি করেন। গুলবাহার গরুটি ক্রয় করে গোপনে জবাই করে ডোমারের এক মাংস বিক্রেতার কাছে মাংসগুলো বিক্রি করেন বলে মানববন্ধনে জানানো হয়।

অপরদিকে জবাইকৃত পশুটির রক্ত ও উচ্ছিষ্ট খেয়ে পরের দিন এলাকার বেশ কয়েকটি কুকুর অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। এ ঘটনায় এলাকায় আতংক ও ক্ষোভ বিরাজ করছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য