মো. জাকির হোসেন সৈয়দপুর (নীলফামারী) থেকেঃ নীলফামারীর সৈয়দপুরে পৌরসভার বেওয়ারিশ কুকুরের উপদ্রব অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে চলেছে কর্তৃপক্ষ নীরব দর্শক জনমনে আতংক ছড়িয়ে পড়েছে।

জানা গেছে, পৌরসভার পুরাতন বাবুপাড়া, দারুল উলুম মোড়, নয়াটোলা, বাঁশবাড়ি, মিস্ত্রিপাড়া, রসুলপুর, গোলাহাট, নতুন বাবুপাড়া, উপজেলা পরিষদ গেইট, শহীদ ডা. জিকরুল হক রোডের সামনে দলে দলে বেওয়ারিশ কুকুর উগ্র মেজাজে দলবেধে দৌড়ঝাপ করছে। কুকুর দলের উগ্রভাব দেখে মনে হয় কমলমতি শিশু ছাত্র-ছাত্রী তো দুরের কথা যে কোনো মুহূর্তে বয়স্ক মানুষকে একা পেলে আক্রমন করতে পারে।

পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা জিন্না আলী, নাসিমা বেগম, আব্দুল খালেক, ওমর ফারুকসহ অনেকে জানান, ছেলেমেয়েদের স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসায় পাঠিয়ে আমরা অভিভাবক বাড়িতে দুশ্চিন্তায় ভুগছি। বেওয়ারিশ এমনকি পাগলা কুকুরের আক্রমণে সন্তানেরা জলাতংক রোগে আক্রান্ত হতে পারে। নাসিমা জানান, বেওয়ারিশ কুকুরের ব্যাপকতায় সন্তানেরা নিরাপদে বাড়ি থেকে বের হতে পারছে না। ঘর থেকে বের হলেই দলবদ্ধ কুকুরের উপদ্রব এলোপাতারি ছুটাছুটি করতে দেখা যাচ্ছে।

পৌর কর্তৃপক্ষ সবকিছুর ট্যাক্স বাড়িয়েছে কিন্তু সেবার মান বাড়ায়নি। রাস্তা দিয়ে হাটলেই ড্রেনে জমে থাকা ময়লার দূর্গন্ধ। বিশেষ বাস্তবে জনগনের নানা অভিযোগ থাকলেও পৌর কর্তৃপক্ষ নিরব দর্শক। অভিযোগ করেও সমস্যার সমাধান হয় না। পৌরবাসী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে এমন ঘটনায় কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে একটি স্ট্যাটার্স পোস্ট করেছেন কিন্তু এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কুকুর নিধন বা অন্যান্য সমস্যা সমাধানের কোন পদক্ষেপ নেয়া হয়নি।

এ ব্যাপারে সৈয়দপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র-১ জিয়াউল হক জিয়া বলেন, কুকুর নিধনের হাইকোর্ট থেকে নিষেধাজ্ঞা জারি করা আছে। পৌর পরিষদ কুকুর নিধনে সবসময় আন্তরিকতার সাথে কাজ করছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য