আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট থেকে: কোচিং সেন্টারে একাধিক ছাত্রীর সাথে যৌন নিপীড়নকারী শিক্ষক “মেহেদী হাসান সুমন” এর চাকরিচ্যুতির ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। বৃহস্পতিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বিকালে লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা আলিমুদ্দিন ডিগ্রী কলেজের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এতে উপজেলা পর্যায়ের ছাত্রলীগ, ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দসহ কয়েক শতাধিক ছাত্র ও অভিভাবক উপস্থিত ছিলেন। হাতীবান্ধা এলাকাবাসীর আয়োজনে এতে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মশিউর রহমান মামুন, সাধারণ সম্পাদক ফাহিম শাহরিয়ার খান জিহান, সহসভাপতি প্রিন্স, সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুস সামাদ, উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ন সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল নোমান, কলেজ ছাদলের সাধারন সম্পাদ আপেক, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সেলিম হোসেনসহ আরও অনেকেই।

আলিমুদ্দিন ডিগ্রী কলেজ থেকে ওই শিক্ষকের সাময়িক বরখাস্তের পরিবর্তে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত, যত দ্রুত সম্ভব তাকে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার জন্যয জোড় আহ্বান জানান বক্তাগণ।

তারা আরো বলেন, পরিমল জয়ধর নামিও এই মেহেদী হাসান সুমন, এর আগেও হাতীবান্ধা পারুলিয়া ও বড়খাতা নামক একায় একাধিক ছাত্রীর সাথে অনৈতিক কাজে জড়িয়ে পড়েছিলেন। পরে স্থানীয় লোকজনের সন্দেহ হলে তাকে ওই এলাকা হতে বিতাড়িত করা হয়। সুমনকে ধরে আইনের আওতায় এনে যদি কঠিন শাস্তি দেওয়া না হয়, তাহলে এই পরিমল নামিও শিক্ষকের সংখ্যা দিনদিন বৃদ্ধি পাবে।

পরিমল নামিও এই ধরনের শিক্ষকের হাত থেকে কোমল মতি শিক্ষার্থীদের ইজ্জত রক্ষার্থে যত দ্রুত সম্ভব শিক্ষক নামের কলঙ্ক মেহেদী হাসান সুমনকে গ্রেপ্তার করতে হবে এবং তাকে ওই কলেজ থেকে স্থায়ী বহিষ্কার করতে হবে। তা নাহলে কঠোর আন্দোলনে যাবার হুমকি দেন ছাত্র নেতাগন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য