দেলোয়ার হোসেন বাদশা, চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) থেকেঃ পশ্চিম আফ্রিকার দেশ মালিতে বিদ্রোহীদের হামলায় নিহত সেনা সদস্য সার্জেন্ট আলতাফ হোসেনের গ্রামের বাড়ীতে চলছে শোকের মাতম। গত ২৪ আগষ্ট রবিবার আন্তঃ বাহিনীর জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) এক বিবৃতিতে জানা গেছে, মালিতে বাংলাদেশের শান্তিরক্ষী বাহিনীর সার্জেন্ট আলতাফসহ ৩ সেনা সদস্য বিদ্রোহীদের বোমা হামলায় নিহত হন।

বিবৃতিতে বলা হয় মালিতে শান্তিরক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার সময় শনিবার বাংলাদেশী শান্তিরক্ষীদের সাথে সন্ত্রাসীদের সংঘর্ষ হয়। বাংলাদেশী শান্তিরক্ষীরা সফলভাবে তাদের প্রতিহত করে। দায়িত্ব পালন শেষে রবিবার ক্যাম্পে ফেরার পথে তাদের উপর ফের হামলা হলে তারা আবারও প্রতিহত করে। তবে সংঘর্ষের এক পর্যায় সন্ত্রাসীদের পুঁতে রাখা ইম্প্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস (আইইডি) বিস্ফোরনে ৩ জন নিহত ও ৪ জন আহত হয়।

এদের মধ্যে সার্জেন্ট আলতাফ হোসেন মন্ডল ইএমই (দিনাজপুর) ল্যান্স কর্পোরাল জাকিরুল আর্টিলারি (নেত্রকোনা) ও সৈনিক মনোয়ার ইস্টবেঙ্গল (বরিশাল)। বাবার মৃত্যুর খবরে আলতাফের দুই কন্যা মিম (১৭) সুমাইয়া (১০) ও স্ত্রী নাসিমা এখন পাগল প্রায়। নিহত সার্জেন্ট আলতাফ ১৯৯২ সালে সেনাবাহিনীতে যোগ দেন। গত চার মাস আগে সৈয়দপুর শহীদ মাহবুব সেনানিবাস থেকে মালিতে শান্তিরক্ষী বাহিনীতে তাকে পাঠানো হয়।

আলতাফ দিনাজপুর জেলার চিরিরবন্দর উপজেলার পুনট্টি ইউনিয়নের বিশ্বনাথপুর গ্রামের মন্ডলপাড়ার মৃতঃ আব্দুস সাত্তারের পুত্র।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য