মেক্সিকোয় ৭.১ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্পে অন্তত ২১৬ ব্যক্তির মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। ভূমিকম্পের ফলে রাজধানী মেক্সিকো সিটির বহু ভবন ধসে পড়েছে। ১৯৮৫ সালের এক ভয়াবহ ভূমিকম্পের বার্ষিকীর দিনে এই ভূমিকম্প হওয়ায় জনমনে তীব্র আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

উদ্ধারকারী দলগুলো দুই কোটি জনসংখ্যা অধ্যুষিত মেক্সিকো সিটির ধসে পড়া অন্তত ৪৯টি ভবনের ধ্বংসাবশেষ থেকে সম্ভাব্য জীবিত মানুষদের উদ্ধারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

মঙ্গলবার দুপুরের পরপরই ভূমিকম্প সংঘটিত হয় এবং সবচেয়ে বেশি মানুষ মারা গেছে মেক্সিকো সিটি ও মোরেলোস রাজ্যে। মোক্সিকো সিটিতে মারা গেছে ৪৯ জন এবং পার্শ্ববর্তী মোরেলোস রাজ্যে ৫৫ জন। এছাড়া, মধ্যাঞ্চলীয় পুয়েব্লা রাজ্যে মারা গেছে ৩২ জন। বাকিরা দেশের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে মারা গেছে।

১৯৮৫ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর মেক্সিকো সিটিতে এক ভয়াবহ ভূমিকম্পে ১০,০০০ মানুষ নিহত হয়েছিল। মঙ্গলবার ভূমিকম্প শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সেই দুঃসহ স্মৃতির কথা মনে করে জনমনে প্রচণ্ড আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

নগরীর ৪৫ বছর বয়সি একজন সরকারি কর্মকর্তা বলেন, সেই ১৯ সেপ্টেম্বরে যে আবার ভূমিকম্প হবে তা ছিল অবিশ্বাস্য ব্যাপার।

৩২ বছর আগের ভূমিকম্পের বার্ষিকীতে মঙ্গলবার মেক্সিকো সিটি কর্তৃপক্ষ আবার ভূমিকম্প হলে কীভাবে লোকজনকে উদ্ধার করতে হবে তার একটি মহড়া চালায়। ওই মহড়া শেষ হওয়ার কিছুক্ষণ পর ভূমিকম্পে কেঁপে ওঠে রাজধানী শহর।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য