সিরিয়ার সরকারি বাহিনী দেইর আয-যোরে প্রচণ্ড বাধার মুখে পড়েছে। দেইর আয-যোরের যেসব এলাকায় মার্কিন বাহিনী মোতায়েন রয়েছে সেসব এলাকায় সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলোর প্রচণ্ড বাধা মোকাবেলা করছে সিরিয় সরকারি বাহিনী। এতে ধারণা করা হচ্ছে, কেবল তাকফিরি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী দায়েশ নয়, মার্কিন মদদপুষ্ট বিরোধীরাও সিরিয় বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছে।

এ সত্ত্বেও সিরিয় বাহিনী বিজয় অব্যাহত রেখেছে। এরইমধ্যে দেইর আয-যোরের পূর্বে ফোরাত উপত্যকা দায়েশের কবল থেকে মুক্ত করেছে সরকারি বাহিনী। দায়েশ-বিরোধী লড়াইয়ে সরকারি বাহিনীকে সহায়তা করেছে রাশিয়ার বিমান বাহিনী।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, এরইমধ্যে ফোরাতের বাম তীরের প্রায় ৬০ বর্গ কিলোমিটার অঞ্চল মুক্ত করেছে সিরিয় বাহিনী।

রুশ সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র মেজর জেনারেল ইগর কোনাশেংকভ আরো জানান, রাকা মুক্ত করার বদলে ওই এলাকায় মার্কিন কমান্ডোদের মোতায়েন করা হয়েছে। মার্কিন মদদপুষ্ট কথিত সিরিয়ান ডেমোক্র্যাটিক ফোর্সেস বা এসডিএফ-কে চিকিৎসা সহায়তা দেয়ার অজুহাতে তাদের মোতায়েন করা হয়। উত্তরাঞ্চলীয় এ এলাকা থেকেই সিরিয়ার বাহিনীর ওপর সবচেয়ে মারাত্মক পাল্টা হামলা চালানো এবং ব্যাপক গোলাবর্ষণ করা হয় বলে সিরিয় সেনাবাহিনীর কমান্ডাররা জানিয়েছেন।

এদিকে, হঠাৎ করে ফোরাতের পানি বেড়ে যাওয়ার কারণে সিরিয় বাহিনী যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এতে সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে। নদীর বাধগুলোর মুখ খুলে দিলেই এভাবে হঠাৎ করে পানি বাড়তে পারে। এসব বাধের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে মার্কিন মদদপুষ্ট সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলো।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য