মিশরের একটি আদালত ৪৩ ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন এবং অপর শত শত ব্যক্তিকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছে। ২০১৩ সালে সামরিক অভ্যুত্থানে তৎকালীন প্রেসিডেন্ট মুহাম্মাদ মুরসি ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর সৃষ্ট সহিংসতায় জড়িত থাকার অভিযোগে গণ বিচারে এসব ব্যক্তিকে এই দণ্ড দিল আদালত।

মুরসি ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর তার পক্ষে হাজার হাজার মানুষ রাজপথে বিক্ষোভ দেখাতে নামলে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ হয়। এতে শত শত বিক্ষোভকারী ও নিরাপত্তা বাহিনীর বহু সদস্য নিহত হয়।

ওই সহিংসতায় জড়িত থাকার দায়ে প্রায় ৫০০ ব্যক্তির বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করা হয়েছিল। এদের মধ্যে ৩০০ জনকে পাঁচ থেকে ১৫ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। চার্জশিটে নাম থাকা বেশিরভাগ ব্যক্তি গত চার বছর ধরে কারাগারে আটক রয়েছেন। এদের মধ্যে আদালত ৫৪ জনকে বেকসুর খালাস দিয়েছে।

খালাস পাওয়া এক তরুণের বয়স ২০১৩ সালে ১৭ বছর ছিল এবং গত চার বছরে কারাগারে তার ওপর নির্যাতন চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তার আইনজীবী।

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলেছে, মিশরের রাজধানী কায়রোর উত্তর অংশে অবস্থিত ওয়াদি আন-নাতরুন কারাগারে স্থাপিত একটি আদালত এসব রায় দিয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য