মাসুদ রানা পলক, ঠাকুরগাঁও থেকেঃ বর্ষায় খাল-বিল, নদী-নালায় পূর্ণতা আসে। গাঢ় সবুজ রং নিয়ে প্রকৃতিতে আসে তারুণ্য। খাল-বিলে ফোটে শাপলা-শালুক। ধান লাগানোর পর আদিবাসী সম্প্রদায়ের অফুরন্ত অবসর। ঠিক সেই ভাদ্র মাসে আসে ওঁরাও সম্প্রদায়ের অন্যতম বার্ষিক উৎসব ‘কারাম’।

এই উৎসবে ওঁরাও কিশোর-কিশোরী, যুবক-যুবতী নাচে-গানে মাতোয়ারা হয়ে ওঠে। কামনা-বাসনা করে আর চেষ্টা করে একটু ভালোবাসার।

সোমবার ১৮ই আগষ্ট (রাত ১২ টায়) নাচে-গানে মাতোয়ারা হয়ে সৃষ্টিকর্তার প্রতি এই নাচ-গান উৎসর্গ করার মাধ্যমে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার পাঁচ পীরডাঙ্গা আদিবাসী পল্লিতে শুরু হয়েছে দুই দিনের কারাম পূজা।

বাংলাদেশ জাতীয় আদিবাসী পরিষদের আয়োজনে জাতীয় আদিবাসী কেন্দ্রীয় পরিষদের সভাপতি রবীন্দ্র নাথ সরেন এই পূজা ও উৎসবের আনুষ্ঠানিক উদ্ভোধন করেন।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাদেক কুরাইশী, সদর উপজেলা আ’লীগের সভাপতি অরুণাংশু দত্ত টিটো ও জাতীয় আদিবাসী পরিষদের উপদেষ্টা এডভোকেট ইমরান চৌধুরী।

এসময় ওঁরাও সম্প্রাদায়ের শতাধিক নারী-পুরুষ ছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার সালন্দর পাঁচপীরডাঙ্গা, গোবিন্দনগর, জগন্নাথপুর, চন্ডিপুরসহ কয়েকটি গ্রামে প্রতিবছর ওঁরাও সম্প্রাদায়ের আদিবাসী নারী-পুরুষ বৃক্ষ পূজা উপলক্ষে কারাম পূজা ও উৎসবের আয়োজন করে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য