ক্যারিবিয়ার লিউয়ার্ড দ্বীপপুঞ্জের কাছে এগিয়ে আসা মারিয়া বিপজ্জনক ধরনের বড় হারিকেনে পরিণত হতে যাচ্ছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

বিবিসির খবরে বলা হয়, রোববার যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল হারিকেন সেন্টার (এনএইচসি) জানিয়েছে, এক মাত্রার হারিকেনটি পরবর্তী ৪৮ ঘন্টায় দ্রুত শক্তি সঞ্চয় করে স্থানীয় সময় সোমবার রাত নাগাদ লিউয়ার্ড দ্বীপপুঞ্জে আঘাত হানতে পারে।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত সোমবার ০৩:০০ জিএমটিতে মারিয়ার কেন্দ্রটি বার্বাডোস থেকে উত্তর-পূর্ব দিকে ২২৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছিল। এটি ঘন্টায় সর্বোচ্চ ১৩৭ কিলোমিটার বাতাসের বেগ নিয়ে ঘন্টায় প্রায় ২১ কিলোমিটার গতিতে পশ্চিম-উত্তর-পশ্চিম দিকে এগিয়ে যাচ্ছিল।

হারিকেন মারিয়া প্রায় হারিকেন আরমার পথ ধরেই এগিয়ে যাচ্ছে। দেড় সপ্তাহ আগে এই অঞ্চলটি পাঁচ মাত্রার আরমার আঘাতে প্রায় ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়।

ক্যারিবীয় অঞ্চলের গুয়াডেলোপ, ডমিনিকা, সেন্ট কিটস ও নেভিস, মন্টসেরাট এবং মার্টিনিকে হারিকেনের সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

ক্যারিবীয় অঞ্চলের যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটিশ ভার্জিন দ্বীপপুঞ্জ, সেন্ট মার্টিন, সেন্ট বার্টস, সাবা, সেন্ট ইউস্টাশিয়াস ও এ্যাঙ্গুইলায় হারিকেন পর্যবেক্ষণ সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

এসব দ্বীপের কোনো কোনোটি হারিকেন ইরমার ক্ষয়ক্ষতি কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করছে। ইরমার আঘাতে এই এলাকাটির ৩৭ জন বাসিন্দা নিহত ও শত শত কোটি ডলার সম্পদের ক্ষয়ক্ষতি হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য