সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদ বলেছেন, সুনির্দিষ্ট কিছু পশ্চিমা দেশ এখনো তার দেশে তৎপর সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোকে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে যাচ্ছে; যদিও এরইমধ্যে তাদের এই ভুল নীতির শিকার হয়েছে এসব দেশেরই সরকার ও জনগণ।

সিরিয়া সফররত ইতালির একটি সংসদীয় প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বৈঠকে এ মন্তব্য করেন প্রেসিডেন্ট আসাদ। ইতালির সংসদের উচ্চকক্ষ সিনেটের সিনিয়র সদস্য ম্যারিও রোমানি প্রতিনিধিদলটির নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

প্রেসিডেন্ট আসাদ বলেন, ইউরোপ থেকে এ ধরনের প্রতিনিধিদলের দামেস্ক সফরের ফলে তারা সিরিয়া পরিস্থিতি সম্পর্কে বাস্তব ধারণা লাভ করতে পারবেন। এর ফলে ইউরোপের জনগণও সিরিয়া সংকটের সঠিক চিত্র উপলব্ধি করতে পারবে যার মাধ্যমে পশ্চিমা গণমাধ্যমের এ সংক্রান্ত মিথ্যাচারের স্বরূপ উন্মোচিত হবে।

ইতালির সংসদীয় প্রতিনিধিদলের সদস্যরা প্রেসিডেন্ট আসাদের সঙ্গে সাক্ষাতের আগে সিরিয়ার সংঘর্ষপীড়িত কয়েকটি এলাকা পরিদর্শন করে চলমান সংকট সম্পর্কে বাস্তব অভিজ্ঞতা লাভ করেন।

সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট আরো বলেন, আন্তর্জাতিক প্রতিনিধিরা বাস্তবতা উপলব্ধি করতে পারলে দামেস্কের ওপর আরোপিত অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ার সুযোগ তৈরি হবে। এ নিষেধাজ্ঞার ফলে সিরিয়ার জনগণ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

সাক্ষাতে ইতালির প্রতিনিধিদলের প্রধান সন্ত্রাস বিরোধী যুদ্ধে সিরিয়ার জনগণের প্রতি সংহতি প্রকাশ করেন। সেইসঙ্গে তিনি এ কথার সত্যতা স্বীকার করেন যে, সিরিয়ার চলমান সন্ত্রাসবাদ ইউরোপীয় দেশগুলোর নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতাকে হুমকির মুখে ঠেলে দিচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য