দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান অভিনীত ‘খাঁচা’ ছবিটি সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে। আকরাম খান নির্মিত এই ছবিটি আসছে ডিসেম্বরেই চলচ্চিত্রটি মুক্তির পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ১৯৪৭ সালে দেশভাগের ওপর ভিত্তি করে কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হক রচিত ‘খাঁচা’ গল্প অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে চলচ্চিত্রটি।

এ প্রসঙ্গে পরিচালক জানান, ‘৩১ তারিখ চলচ্চিত্রটি সেন্সর ছাড়পত্র পায়। মধ্যে ঈদ পড়ে যাওয়ায় আমরা বিষয়টি গণমাধ্যমকে জানাইনি। আনকাট সেন্সর পেয়েছে। আরেকটু প্রচার প্রচারণা শেষে আসছে ডিসেম্বরে চলচ্চিত্রটি মুক্তির পরিকল্পনা করছি।’

২০১১-১২ সালে সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত চলচ্চিত্রটি নির্মাণে দীর্ঘসূত্রিতা প্রসঙ্গে আকরাম খান বলেন, ‘চলচ্চিত্রটির অনুদান যখন আমরা পাই, তখন আমি আমার চলচ্চিত্র ‘ঘাসফুল’ নির্মাণ করছিলাম। সে কারণে এ ছবিটা শেষ করে ‘খাঁচা’ নির্মাণকাজ শুরু করতে কিছুটা দেরি হয়। ‘ঘাসফুল’ নির্মাণের পর আমি কিছুটা অর্থনৈতিক সংকটেও পড়ি।

আমরা যে ধরনের ছবি করি তাতে তো আসলে টিকিটের টাকা থেকে লগ্নি উঠে আসা সম্ভব নয়। ফলে একটি চলচ্চিত্র শেষ করার পর দীর্ঘদিন একটা খারাপ সময় যায়। অনুদানের টাকায় তো পুরো ছবি নির্মাণ সম্ভব নয়। ফলে নতুন করে অর্থায়ন যুক্ত করতেও কিছুটা সময় লাগে।’

চলচ্চিত্রটির মাধ্যমে দেশভাগের যন্ত্রণা তুলে ধরেছেন নির্মাতা। গল্পের প্রেক্ষাপট প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ছবিটা দেশভাগের ওপর। আমার জন্ম ১৯৭৩-এ। সে সময়টাকে বুঝে, সেসময়ের মানুষের আবেগটাকে বুঝে নির্মাণে যেতে হয়েছে। সেসময় যারা ভাবতো ওপারে গেলে তাদের সব ঠিক হয়ে যাবে, কিন্তু ওপারে যেতে পারছে নাথ তাদের বেদনাটা বুঝতেও আমার পড়াশোনা করতে হয়। সবমিলিয়ে এটা অন্যরকম একটা জার্নি ছিল।’

সিনেমাটিতে জয়া আহসান ছাড়াও বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন আজাদ আবুল কালাম, মামুনুর রশীদ, আতাউর রহমান, কায়েস চৌধুরী। অম্বুজাক্ষ এবং সরোজিনীর ছেলে অরুণের চরিত্রে অভিনয় করবে শিশুশিল্পী পিদিম। সিনেমাতে অতিথি চরিত্রে দেখা যাবে রানী সরকারকে। চলচ্চিত্রটিতে ব্যবহৃত দুটি গানে খালি গলায় কণ্ঠ দিয়েছেন রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সাগরিকা জাহান।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য