কুড়িগ্রামের উলিপুরে জমি-জমা বিরোধকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের একটি পরিবারের ঘরবাড়িতে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটিয়েছে। এসময় তাদের পিটুনিতে গুরুত্বর আহত এক মহিলাকে উলিপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে, গতকাল শুক্রবার সন্ধা ৭ টায় উপজেলার রামদাশ ধনিরাম রায়পাড়া গ্রামের। হামলার ঘটনায় সংখ্যালঘু পরিবারটির মাঝে চরম আতংক বিরাজ করছে।

জানাগেছে, উক্ত গ্রামের মনিরাজ চন্দ্র রায়ের পুত্র শ্রী ভেলা চন্দ্র রায়ের সাথে একই গ্রামের মৃত হবিবর রহমানের পুত্র মামুনুর রশিদ ও শফিকুল ইসলামের দীর্ঘদিন ধরে জমি-জমা এবং বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল।

এরই জের ধরে গত ০৮ সেপ্টেম্বর সন্ধা ৭টায় দিকে দেশিয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ভেলা চন্দ্রের বাড়ীতে অতর্কিতে হামলা চালিয়ে ঘর-বাড়ীতে ব্যাপক ভাংচুর করে।

এসময় তাদের বে-ধড়ক পিটুনিকে প্রফুল্ল নাথের স্ত্রী মিলন রানী(৩৬) ও ভেলা নাথ (৪৫) গুরুতর আহত হয়। এসময় দূবৃত্ত্বরা প্রায় ৫০ হাজার টাকার মালামাল ভাংচুর ও একটি স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নিয়ে যায়। আহত মিলন রানীকে উলিপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় ভেলা চন্দ্র রায় বাদী হয়ে ঐ রাতেই ৫ জনকে আসামী করে উলিপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

উলিপুর থানার ওসি এসকে আব্দুল্লাহ আল সাইদ জানান, অভিযোগ পেয়েছি,তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য