আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ ফুলছড়ি উপজেলার মদনেরপাড়া গ্রামের জলিল উদ্দিন সরকার মৃত্যুর পর দ্বিতীয় স্ত্রী ময়না খাতুন ও এক ছেলে ও দুই মেয়ে সতিনের ছেলেকে বখাটে হাবিবুল্যাহ বাশার লেলিন জোর পূর্বক বাড়ি থেকে বের করে দেয়। ফলে ময়না খাতুন গৃহহারা হয়ে শিশু সন্তানদের নিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। এ ঘটনায় ময়না খাতুন বাদি হয়ে ফুলছড়ি থানায় একটি মামলা দায়ের করে।

মামলা সুত্রে জানা গেছে, জলিল উদ্দিন সরকার মারা যাওয়ায় তার মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠানে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সতিনের ছেলে বখাটে হাবিবুল্যাহ বাশার লেলিন ও একই এলাকার লতিফ মিয়ার ছেলে রুবেলের সাথে ময়না খাতুনের বাকবিতন্ডা হয়।

এই ঘটনায় ময়না খাতুনের ভাতিজা সম্প্রতি ফুলছড়ি থানায় একটি সাধারণ ডাইরী দায়ের করে। পরে বসবাসের ক্ষেত্রে এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিদের কথায় বিষয়টি মিমাংসা করা হয়। বিষয়টি মিমাংসা করার পর ওই বখাটে লেলিন ও তার সহযোগিদের দিয়ে জোর পূর্বক বাড়ি থেকে বের করে দেয়।

ফলে বাধ্য হয়ে গাইবান্ধা শহরের পলাশপাড়ার ময়না খাতুনের ভাতিজির বাসায় আশ্রয় নেয়। বখাটে হাবিবুল্যাহ বাশার লেলিন ও তার সহযোগিদের সাথে নিয়ে উক্ত বাসায় গিয়ে প্রাণনাশসহ নানা ধরণের হুমকি দেয়।

শুধু তাই নয়, আর যেন কোনদিন ফুলছড়ির মদনেরপাড়া গ্রামে না যাই। ফলে উক্ত ময়না খাতুন শিশু সন্তানদের নিয়ে অসহায় অবস্থায় মানববেতর জীবন যাপন করছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য