ভয়াবহ বন্যার কারণে ১৪ দিন বন্ধ থাকার পর রোববার দিনাজপুর থেকে সারাদেশের সঙ্গে ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে।

এদিকে এখনও বন্ধ রয়েছে পঞ্চগড় ও ঠাকুরগাঁওয়ের সঙ্গে রেল যোগাযোগ।

১৩ আগস্ট থেকে বন্যার ফলে রেললাইনের মাটি ও পাথর সরে ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ায় দিনাজপুরের সঙ্গে সারাদেশের ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে পড়ে।

পরে রেলওয়ে প্রকৌশল বিভাগ জেলার কাউগা ও চিরিরবন্দর এলাকায় রেললাইন মেরামত করে ট্রেন চলাচলের উপযোগী করে।

সকাল সাড়ে ১০টায় যাত্রী নিয়ে লালমনিরহাট থেকে একটি কমিউটার ট্রেন পার্বতীপুর হয়ে দিনাজপুর রেলওয়ে স্টেশনে পৌঁছার মাধ্যমে দিনাজপুরের সঙ্গে সারাদেশের ট্রেন চলাচল শুরু হয়।

রাতে একতা এক্সপ্রেস আন্তঃনগর ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশ্যে দিনাজপুর ছেড়ে যাবে বলে জানিয়েছে দিনাজপুর রেলওয়ে স্টেশন মাষ্টার মঞ্জরুল ইসলাম মঞ্জু।

দিনাজপুর রেলওয়ের সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল হানিফ জানান, বন্যার ফলে দিনাজপুর রেলওয়ের আওতাধীন ২০০ কিলোমিটার রেললাইনের মধ্যে প্রায় ১৬ কিলোমিটার রেললাইনের মাটি ও পাথর সরে যায়। পরে মেরামতের মাধ্যমে চিরিরবন্দর ও কাউগা রেললাইনের মেরামত কাজকরা হয়েছে। ঈদের আগেই মানুষজন সুষ্ঠুভাবে চলাচল করতে পারবেন বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

দিনাজপুর রেলওয়ে স্টেশন সুপারিন্টেনডেন্ট গোলাম মোস্তফা জানান, দিনাজপুরের সঙ্গে সারাদেশের ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে। তবে পঞ্চগড় ও ঠাকুরগাঁওয়ের ট্রেনলাইনে এখনও ট্রেন চলাচল শুরু হয়নি। কাজ চলছে এবং ঈদের পর চালু হতে পারে বলে জানিয়েছেন তিনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য