আজিজুল ইসলাম বারী,লালমনিরহাট থেকে: লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলায় রাধিকা রানী কোকিলা (১৫) নামে এক কিশোরীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। সোমবার সকালে তার মরদেহ লালমনিরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায় থানা পুলিশ। এর আগে রোববার গভীর রাতে নিজ বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। মৃত কিশোরী রাধিকা রানী কোকিলা উপজেলার কমলাবাড়ি ইউনিয়নের চন্দনপাট বাবুরটারী গ্রামের কোকিলেশ্বর হেদলের মেয়ে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, রাধিকা দীর্ঘ দিন লালমনিরহাট শহরের একটি বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে কাজ করত। সেখানে এক ছেলের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠায় বাসার মালিক কিছু দিন আগে তাকে তার বাড়িতে পাঠান। সেই থেকে রাধিকা ওই ছেলেকে বিয়ের জন্য চাপ দিয়ে আসছিল। কিন্তু তার পরিবার বাল্য বিয়ে দিতে অসম্মতি জানায় প্রায় বাকবিতন্ডা হত পরিবারের সঙ্গে।

রোববার বিকেলেও বাবা মেয়ের মাঝে বাকবিতন্ডা হয়। হাতাহাতির ঘটনাও ঘটে। সন্ধ্যার পর ওই পরিবারের পক্ষ থেকে প্রতিবেশীদের মাঝে প্রকাশ করা হয় রাধিকা অত্মহত্যা করেছে। রাতেই তাড়াহুড়ো করে তাকে শেষকৃত্য করার প্রস্তুতি নিলে স্থানীয়দের খবরে থানা পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করেন। আদিতমারী থানার ওসি হরেশ্বর রায় জানান, রাধিকার মৃত্যুর রহস্যজনক হওয়ায় মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে। মগের রিপোর্ট এলে তার মৃত্যুর কারণ জানা যাবে। তবে এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য