আগামী ৬ অক্টোবর দেশব্যাপী মুক্তি পাবে ‘ঢাকা অ্যাটাক’। এরইমধ্যে ছবিটি নিয়ে বেশ কৌতূহল আছে দর্শকদের মধ্যে। অ্যাকশন ধাঁচের ছবিটির গল্প লিখেছেন গোয়েন্দা পুলিশের এডিসি সানী সানোয়ার। ফলে ঢাকাই ছবিতে চিরচেনা পুলিশকে এবার অন্যভাবে আবিষ্কার করবে দর্শক। ছবিতে সোয়াট পুলিশ, বোমা নিষ্ক্রিয় দলসহ নানা চমক থাকছে। শুটিংয়ের বন্দুক থেকে শুরু করে কসটিউমÑসবকিছু ছিল আসল।

গত শনিবার ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবির অভিনেতা আরেফিন শুভ, এ বি এম সুমন, শতাব্দী ওয়াদুদসহ আরও অনেকে ফেসবুক লাইভে এসেছিলেন। সেদিন ইউটিউবে প্রকাশ করা হয় ছবিটির টিজার। পরিচালক দীপংকর দীপন জানালেন, ছবিটি দেশে মুক্তি পাওয়ার পর আগামি ২০ অক্টোবর থেকে ধারাবাহিকভাবে মুক্তি পাবে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে।

গত বছরের ২২ নভেম্বর প্রকাশিত হয়েছিল এই ছবির ‘ফার্স্ট লুক’ এবং এ বছর ৬ আগস্ট প্রকাশ পায় প্রথম অফিশিয়াল পোস্টার। দীপংকর দীপন বললেন, খুব শিগগির প্রকাশ করা হবে সিনেমার গানগুলো।

ফেসবুক লাইভে এসে আরেফিন শুভ বলেন, ‘শুটিং অনেক আগে শেষ হয়ে গেছে। কিন্তু ছবির কারিগরি অংশটুকু সুন্দরভাবে উপস্থাপনের জন্য ছবি মুক্তিতে সময় লাগছে।’ তাঁর সঙ্গে একমত হয়ে শতাব্দী ওয়াদুদ বলেন, ‘ভালো জিনিসের জন্য সময় দিতে হয়।’ অভিনেতা এ বি এম সুমন বর্ণনা দিলেন তাঁর শুটিং-অভিজ্ঞতার কথা। সোয়াট পুলিশের ১৩-১৪ কেজি ওজনের কসটিউম পরে বান্দরবানের পাহাড়ে উঠতে হয়েছে তাঁকে।

ছবি অভিনয় করেছেন মাহিয়া মাহি, নওশাবা, হাসান ইমাম। বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করেছেন নায়ক আলমগীর এবং শিপন মিত্র। ঢাকা, বান্দরবান এবং মালয়েশিয়ার বিভিন্ন স্থানে ‘ঢাকা অ্যাটাক’-এর শুটিং হয়েছে। বাংলা ছবির দুর্দিনে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ নতুন কী যোগ করে, সেটাই দেখার। সাবধান, ৬ অক্টোবর তারিখটা তাই ভুলবেন না। ওই দিনেই যে ঢাকা অ্যাটাকের শুরু!

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য