ষ্টাফ রিপোর্টারঃ আকস্মিক ভয়াবহ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ দিনাজপুরের বন্যাদূর্গত মানুষদের খবর সংগ্রহ এবং প্রকাশে ব্যাস্ত থাকতে হয়েছে গত ১৪ই আগষ্ট সন্ধা থেকে।আমরা না কাজ করলে দেশের মানুষ জানত কেমন করে দিনাজপুরের মানুষের অবস্থা।আমাদের প্রচারের কারনে দিনাজপুরের বন্যা দূর্গতদের সহায়তায় দেশের বড় বড় মন্ত্রী, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, এবং সয়ং মাননিয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা দিনাজপুরে এসেছিলেন। এখন দেশের এবং দেশের বাহিরের বিভিন্ন স্থান থেকে ত্রান সহায়তা আসছে এসব মানুষের জন্য। বন্যা দূর্গত মানুষের দুঃখ দুর্দশার খবর দিতে ব্যাস্ত, নিজের খবরের সময় কোথায়।

কথা গুলো বলেছেন প্রযুক্তিবিদ, কম্পিউটার প্রগ্রামার, এবং দিনাজপুরের সর্ববৃহৎ অনলাইন দৈনিক পত্রিকা “দিনাজপুরনিউজ.কম” এর সম্পাদক জনাব শরিফুল ইসলাম আজাদ জয়, অনলাইন জগতে “আজাদ জয়” নামে তার বেশ পরিচিত। গত ১৫ই আগষ্ট রাতে বৃষ্টিতে তার বসবাসরত পৈত্রিক ভিটাবাড়ীটি হেলে পড়তে শুরু করে। সময় মত পরিবারের লোকজনকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিতে সক্ষম হলেও সম্পূর্ণ মালামাল বের করতে পারেননি। এর মধ্যেই বাড়ীটি সম্পূর্ণ ধ্বসে পড়ে। তবে কারও কোন ক্ষতি হয়নি।

তিনি জানান, এই বাড়ীটি উনার দাদা ১৯৪০ সালের দিকে কেনেছিলের এই বাড়ীতে উনার বাবা চাচাদের শৈশব, কৈশোর, যৌবন কেটেছে এখানে উনার নিজের শৈশব, কৈশোর, যৌবন কেটেছে এখানে উনার সন্তানরাও বেড়ে উঠছিল। তিনি বলেন, অনেক স্মৃতি জড়ীয়ে আছে বাড়ীটি ঘিরে, ধ্বসে পড়ায় মানসিক ভাবে কষ্ট পেয়েছি। প্রকৃতির ইচ্ছার কাছে আমাদের তো কিছু করার নেই। নতুন বাড়ী তৈরী করতে অনেক টাকা লাগবে, আমন ধান উঠলে বাসার কাজে হাত দেওয়ার ইচ্ছা ছিল, কিন্তু ধান ক্ষেতের যা অবস্থা মনে না হয় এবছর সম্ভব হবে। দেখা যাক আল্লাহ্’পাক কি ইচ্ছা আছে।

আজ রবিবার সম্পাদককে বাড়ী থেকে মালামাল উদ্ধার করতে দেখা যায়। তিনি সকলের কাছে দোয়া প্রার্থি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য