দিনাজপুরের বীরগঞ্জে প্রতিবেশির বাড়ী থেকে মোঃ মছির উদ্দিন (৩৮) নামে এক কুলি শ্রমিকের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মোঃ মছির উদ্দিন উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের মিরাটঙ্গী গ্রামের মোঃ আবেদ আলীর ছেলে এবং পেশায় কুলি শ্রমিক।

শনিবার দুপুর ১টায় উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের মিরাটঙ্গী গ্রামের মোঃ মজিবর রহমানের ছেলে মোঃ শহীদুল ইসলামের বাড়ী হতে মৃতদেহটি উদ্ধার করে।

প্রতিবেশী সামিউল ইসলাম জানান, শুক্রবার বাড়ীর পাশের শ্বশানে স্থানীয় বাসিন্দা পুলিশ চন্দ্রের লাশ দাহ করা হয়। সেখানে মোঃ মছির উদ্দিনে সাথে রাত সাড়ে ৭টায় আমি যাই। কিছুক্ষণ থাকার পর রাত সাড়ে ৯টায় স্থানীয় লাটের হাট বাজারে যাই। সেখান থেকে মছির উদ্দিন রাত ১০টায় বাড়ী ফিরে যায় আমি হাটে অবস্থান করি। রাত ১২টায় বাড়ী ফিরে এসে শুনি প্রতিবেশী মোঃ শহীদুল ইসলামের বাড়ীতে মছির উদ্দিনের মৃতদেহ পড়ে আছে।

মৃতের ছোট ভাই মিজানুর রহমান জানান, রাতে মাছ মারতে কাছেই ক্ষেতে যাই। শুক্রবার রাত ১২টায় সেখান থেকে কান্নার আওয়াজ শুনতে পেয়ে বাড়ীতে ছুটে আসি। বাড়ী এসে জানতে পারি প্রতিবেশি মোঃ মজিবর রহমানের ছেলে মোঃ শহীদুল ইসলামের বাড়ীতে আমার বড় ভাই মোঃ মছির উদ্দিনের মৃতদেহ পড়ে আছে। সেখানে গিয়ে শহীদুল ইসলাম নেই। সে কাজের খোজে চট্রগ্রামে গেছে। শহীদুল ইসলামের স্ত্রী মোছাঃ বুলবুলি বেগম (৩৩) এবং ছেলে মোঃ বুলবুল (১৪)কে ঘটনা সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করলে তারা দুজনেই ভিন্ন কথা বলে। এতে আমার সন্দেহ হয় যে আমার ভাইকে হত্যা করা হতে পারে। শনিবার সকাল ১১টায় আমি বিষয়টি লিখিত ভাবে থানাকে অবহিত করি।

তবে হত্যার অভিযোগ অস্বীকার করে শহীদুল ইসলামের স্ত্রী মোছাঃ বুলবুলি বেগম জানান, শুক্রবার রাত আনুমানিক সাড়ে ১০টায় হঠাৎ মছির উদ্দিন বাড়ীর ভিতরে প্রবেশ করে জানান, হঠাৎ সে অসুস্থবোধ করছে এবং পানি খেতে চায়। দ্রুত পানি আনতে নিয়ে এসে দেখি তার আর কোন সাড়া শব্দ নেই। কিছুক্ষণ পর তার পরিবারের লোকজন চলে আসে।

বীরগঞ্জ থানার এসআই মোঃ সাইদুল ইসলাম জানান, সংবাদ পাওয়ার পর আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। প্রতিবেশির বাড়ীতে মারা যাওয়ার কারণে এলাকায় রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। আমরা সুরতহাল শেষে দুপুর ২টায় মৃতদেহের ময়না তদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি।

বীরগঞ্জ থানার ওসি আবু আককাছ আহমেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ব্যাপারে বীরগঞ্জ থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। মৃত্যুর প্রকৃত রহস্য উদঘাটনের জন্য মৃতদেহ উদ্ধার ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্টের প্রেক্ষিতে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য