মোঃ লিহাজ উদ্দীন মানিক, বোদা (পঞ্চগড়) থেকেঃ পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার চন্দনবাড়ি ইউনিয়ের চন্দনবাড়ি বাজারে সাইকেল চুরির করার সময় হাতে নাতে আটক করে তাকে গণপিটুনি দিয়ে ইয়াং স্টার ক্লাব ঘরে ঢুকিয়ে তার লিঙ্গের চামড়া কেটে দেয়া হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, উপজেলার পাঁচপীর ইউনিয়নের সমরুর হাট গ্রামের মৃতঃ তোতা রামের ছেলে রমেশ চন্দ্র বর্মণ (৩৫) গত বৃহস্পতিবার চন্দনবাড়ি এলাকার গোমস্তাপাড়া গ্রামের এনামুল হকের সাইকেল চুরি করার সময় হাতে নাতে ধরা পরে। পরে তাঁকে গণপিটুনি দেয় স্থানীয়রা।

এরপর বাজারের ক্লাব ঘরে ঢুকিয়ে ছুড়ি/চাকু বা ব্লেড দিয়ে লিঙ্গের চামড়া কেটে নেয়া হয়। এরপর স্থানীয় গ্রাম পুলিশ থানায় খবর দিলে বোদা থানার পুলিশ তাকে রাতই ক্লাব ঘর থেকে উদ্ধার করে বোদা স্বাস্থ্য কমপেক্সে ভর্তি করে। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়।

পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে কর্তব্যরত ডাঃ তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। এ ঘটনাটি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যকার অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। এ দিকে বৃহস্পতিবার রাতেই সাইকেলের মালিক এনামুল রমেশের বিরুদ্ধে থানায় চুরির মামলা দায়ের করেন।

মামলার দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তা এস,আই হাফিজ জানান, সাইকেল চুরির ঘটনায় মামলা হয়েছে। বর্তমানে রমেশের রংপুরে চিকিৎসা চলছে। অপরদিকে রমেশের পারিবারিক সুত্রে জানা যায় তারাও মারটিপ সহ লিঙ্গ কেটে নেয়ার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করবেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য