দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরে পৃথক দু’টি মন্দিরে প্রতিমা ভাংচুর করেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে শাহরিয়ার বাপ্পি (৩২) নামে সাবেক এক সেনা সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার দিবাগত রাতে দিনাজপুর সদর উপজেলার ফুলতলা শ্মশানঘাট ও হিন্দু সৎকার সমিতির কালী মন্দির ও মাসিমপুর রায়পাড়া দূর্গা মন্দিরে এই প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনায় এলাকার সংখ্যালঘু মানুষের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

এলাকাবাসি জানায়, শুক্রবার দিবাগত রাতে প্রথমে শ্মশান ঘাট কালী মন্দিরে ও পরে মাসিমপুর রায়পাড়া দূর্গা মন্দিরে প্রতিমাগুলোর মাথা কেটে পালিয়ে যায় দুবৃত্তরা।

শনিবার (২৬ আগষ্ট) সকালে খবর পেয়ে সদর উপজেলার হামজাপুর গ্রামে নিজ বাড়ির ছাদ থেকে শাহরিয়ার বাপ্পি নামে সাবেক সেনা সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। আটক শাহরিয়ার বাপ্পি সদর উপজেলার হামজাপুর গ্রামের মো. মুসলেম উদ্দিনের ছেলে।

শনিবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি, দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মীর খায়রুল আলম ও পুলিশ সুপার মো. হামিদুল আলম।

দিনাজপুর পুলিশ সুপার মো. হামিদুল আলম জানান, বাপ্পি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে কর্মরত ছিল। সেই সময় তার মানুষিক অসুস্থতা দেখা দিলে তাকে চাকুরী থেকে অবসর দেয়া হয়।

দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মীর খায়রুল আলম জানান, এ ব্যাপারে তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি জানান, এটি উগ্র মৌলবাদীদের কাজ। পুলিশ প্রশাসনকে বিষয়টি নিয়ে অধিকতর তদন্ত ও দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য