ঠাকুরগাঁও পীরগঞ্জ উপজেলার জসাই পাড়া গ্রামের স্ত্রী সালমা বেগম (৩৮) কে হত্যার দায়ে স্বামী এনামুল হক (৫৫) কে মৃত্যুদন্ড দিয়েছে আদালত। বৃহস্পতিবার ঠাকুরগাঁও অতিরিক্ত জেলা জর্জ আদালতের বিচারক হায়দার আলী আসামীর উপস্থিতিতে এ রায় প্রদান করেন।

আদালত সূত্র জানা গেছে, ২০১১ সালের ২০ এপ্রিল জেলার পীরগঞ্জ উপজেলায় শ্যামপুর এলাকায় স্ত্রী সালমা বেগমকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর মৃতদেহ মাটির নিচে পুতে রাখে স্বামী এনামুল হক। কয়েকদিন পরে ওই এলাকার একটি ক্ষেত থেকে মাটির নিজে পুতে রাখা মৃত সালমা বেগমের লাশ উদ্ধার করেন পুলিশ। পরে মৃতের ভাই সফির উদ্দিন বাদী হয় ভগ্নিপতি এনামুল হকের নামে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই আমজাদ আসামীকে গ্রেফতার করে বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে ১৬৪ ধারা মতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করেন। পরে দীর্ঘদিন মামলার সাক্ষ্য প্রমানের ভিত্তিতে এনামুল হকে বিরুদ্ধে প্রাথিমকভাবে ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় ৩০২/২০১ ধারার অভিযোগে আদালত ২০১১ সালে ৭ ডিসেম্বর চার্জশীট দাখিল করা হয়।

পরে বিজ্ঞ আদালতের বিচার সাক্ষ্য প্রমানের ভিত্তিতে হত্যাকান্ডের সাথে জরিত থাকার সতত্য প্রমান পাওয়ায় বৃহস্পতিবার দুপুরে অতিরিক্ত জেলা জর্জ আদালতের বিচারক হায়দার আলী আসামীর উপস্থিতিতে মৃত্যুদন্ড ঘোষনা করেন। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবি ছিলেন এপিপি আব্দুল হামিদ ও আসামী পক্ষের আইনজীবি আবু মনসুর।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য