আফগানিস্তানের হেলমান্দ প্রদেশে পুলিশের প্রাদেশিক সদরদপ্তরের সামনে এক আত্মঘাতী গাড়ি বোমা হামলায় অন্তত পাঁচজন নিহত হয়েছেন।

বুধবারের এই হামলায় আরও ৪২ জন আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা, খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্স ও ডনের।

প্রাদেশিক পুলিশ প্রধান আব্দুল গফর সাফাই জানিয়েছেন, হেলমান্দের রাজধানী লশকর গাহয়ের ওই সদরদপ্তরটিতে নিজেদের বেতন নিতে জড়ো হয়েছিলেন পুলিশ ও সেনা সদস্যরা, তাদের লক্ষ্য করেই বিস্ফোরণটি ঘটানো হয়েছে।

এতে স্থানীয় দুই নারী, দুই সৈনিক ও একটি শিশু নিহত ও আরো ৪০ জনেরও বেশি আহত হয়েছেন বলে রয়টার্সকে জানিয়েছেন লশকর গাহয়ের হাসপাতালের এক চিকিৎসক। নিহতদের লাশ ও আহতদের হাসপাতালে আনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন তিনি।

পুলিশ সদরদপ্তরের গাড়ি পার্কের এলাকায় বিস্ফোরণটি ঘটানো হয়েছে বলে জানিয়েছে ডন। এতে নিকটবর্তী একটি মসজিদ ও সংলগ্ন মাদ্রাসার ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে বলে ডনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এতে আরো বলা হয়, হামলার পরপরই সাংবাদিকদের কাছে পাঠানো ক্ষুদ্রে বার্তায় তালেবান হামলায় দায় স্বীকার করেছে।

ক্ষুদে বার্তায় বলা হয়েছে, “আমরা সেনাবাহিনীর ট্যাঙ্ক লক্ষ্য করে হামলা চালিয়েছি, বহু জনকে হত্যা করেছি।”

এর আগে জুনে একই শহরে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা বেতন তুলতে একটি ব্যাংকে জড়ো হলে সেখানে হামলা চালিয়েছিল জঙ্গিরা। ওই হামলার পর নিরাপত্তাজনিত কারণে পুলিশ সদরদপ্তরেই ওই ব্যাংকের একটি শাখা খোলা হয়েছিল।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য