দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ থানা আ.লীগের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা দিবস উপলক্ষ্যে শোক র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষের আশংকায় ১৪৪ ধারা জারী করেছে ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা মৌসুমী আফরিদা।

মঙ্গলবার বেলা ২.১০ টা থেকে ওই ১৪৪ ধারা জারী করা হয়। পরবর্তী ঘোষনা না দেয়া পর্যন্ত ওই আদেশ বলবৎ থাকবে বলেও ঘোষনায় বলা হয়। ২১ আগস্ট উপলক্ষ্যে মঙ্গলবার নবাবগঞ্জ ডাকবাংলো এলাকায় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান শোক র‌্যালী, মিলাদ-মাহফিল ও আলোচনা সভার আয়োজন করে।

একই উদ্দেশ্যে ২১ আগস্ট দলের সভাপতি ও সংসদ সদস্য শিবলী সাদিক শোক র‌্যালী ও আলোচনা সভা করে। ওই সভা শেষ হলে উপজেলা সদরের আ.লীগের সদস্য তৌহিদুলকে শিবলী গ্রুপের কর্মীরা বেদম মারপিটে আহত করে। সে বর্তমানে দিমেকে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার উভয়পক্ষই একই উদ্দেশ্যে নবাবগঞ্জ ডাকবাংলো চত্ত্বরের মুক্তমঞ্চে সমাবেশেরে আয়োজন করে। একপর্যায়ে দু গ্রুপের লোকজন সামান্য দুরত্বে অবস্থান নেয়। মাঝখানে অবস্থান নেয় পুলিশ। এরইমধ্যে একটি গ্রুপ র‌্যালী বের করার প্রস্তুতি নিলে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়।

পরিস্থিতি অবলোকন করে উপজেলা ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা ওই ১৪৪ ধারা জারী করেন। এ সময় বিরামপুর সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার এ এস এম হাফিজুর রহমান, নবাবগঞ্জ থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ সুব্রত কুমার সরকার সহ পুলিশ সদস্য গণ সেখানে উপস্থিত ছিলেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন থাকতে দেখা গেছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য