রংপুরে একসাথে দুই স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগে স্বামীকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। মঙ্গলবার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক হুমাযুন কবির এই আদেশ দেন। রায় ঘোষণার সময় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামী আদালতে উপস্থিত ছিল।

আদালত সূত্রে জানাগেছে, রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার রূপসি গাছুয়াপাড়া এলাকার মৃত আফতাব উদ্দিনের পুত্র ইলিয়াস আলীর দুই স্ত্রী ছিল। এ নিয়ে প্রায়ই তাদের পারিবারিক কলহ দেখা দিত। ঘটনার দিন ২০১৪ সালের ১০ জুলাই কলহের জের ধরে প্রথম স্ত্রী মোমেনা বেগম(৪৮)কে কুড়াল এলোপাথারি কোপাতে থাকে স্বামী ইলিয়াস আলী।

প্রথমস্ত্রী মোমেনা বেগমকে বাঁচাতে দ্বিতীয় স্ত্রী মকছুদা বেগম এগিয়ে এলে তাকেও কুড়াল দিয়ে এলোপাথারি আঘাত করা হয় । এতে ঘটনাস্থলেই প্রথম স্ত্রী মোমনা বেগম ও দ্বিতীয় স্ত্রী মকছুদা বেগম মারা যায়। এলাকাবাসি ঘাতক ইলিয়াস আলীকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

এ ঘটনায় মিঠাপুকুর থানার এসআই জাহাঙ্গির আলম বাদি হয়ে ইলিয়াস আলীকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলাটি তদন্ত শেষে এসআই নজরুল ইসলাম আদালতে চার্জসিট দাখিল করেন। আদালত সাক্ষ প্রমান শেষে মঙ্গলবার আসামীকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেন।

সরকার পক্ষের আইনজীবী ছিলেন পিপি আব্দুল মালেক এবং আসামী পক্ষের আইনজীবী ছিলেন এ্যাডভোকেট আমজাদ হোসেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য