জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান সাবেক রাষ্ট্রপতি এইচ এম এরশাদ আবারো মহাজোট থেকে সরে আসার ইঙ্গিত দিয়ে বলেছেন এবার আর মহাজোটে নয়, আগামী সংসদ নির্বাচনে এককভাবে নির্বাচন করবে জাতীয় পার্টি। এজন্য ৩০০ আসনে যাছাই-বাছাই করে প্রার্থী চূড়ান্ত করা হচ্ছে। মঙ্গলবার দুপুরে রংপুর সার্কিট হাউসে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় কালে তিনি এসব কথা বলেন।

ষোড়শ সংশোধনী নিয়ে কোন মন্তব্য করবেন না জানিয়ে তিনি অভিযোগ করে বলেন, এবারের ভয়াবহ বন্যায় সরকার বানভাসি মানুষদের রক্ষায় তেমন কোনও পদক্ষেপ নেয়নি। তবে জাতীয় পার্টি বানভাসি মানুষদের পাশে দাড়িয়েছে। সাধ্য মত ত্রাণ দেওবার চেষ্টা করছে। রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয়ভাবে কোনও মেয়র প্রার্থী দেবে না বলে আশা প্রকাশ করে এরশাদ বলেন, তারপরেও আওয়ামী লীগ প্রার্থী দিলেও জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা বিপুল ভোটে জয়ী হবে। তবে আশা করছি আওয়ামী লীগ কোনও প্রার্থী দেবে না।

এর পরে তিনি নগরীর জাহাজ কোম্পানি মোড়স্থ ইউনিয়ন ব্যাংকের ৬২ তম শাখার উদ্বোধন করেন। এ সময় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান সাবেক রাষ্ট্রপতি ও ইউনিয়ন ব্যাংকের পরিচালক হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, খুব কম সময়ের মধ্যেই রংপুরে গ্যাস আসবে। প্রধানমন্ত্রীর সাথে এনিয়ে আমার কথা হয়েছে। এজন্য সমীক্ষার কাজও শুরু হয়ে গেছে। এরশাদ বলেন, আমরা আর অবহেলিত এবং অন্যান্যস্থানের চাইতে পিছিয়ে থাকতে চাইনা। ধান সবজিসহ খাদ্যে উদ্বৃত্ব অঞ্চল আমাদের, তবুও কেন আমরা পিছিয়ে থাকব। এর কারণ গ্যাস না থাকায় এখানে শিল্পকলকারখানা গড়ে উঠেছে না। এ কারণে বেকার সমস্যা অনেক। এ বেকার সমসা দূর করতে হলে শিল্প কলকারখানা গড়ে তোলার কোন বিকল্প নেই।

সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদ বলেন, আমি ক্ষমতা ছেড়ে দেওয়ার পর আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় গিয়ে সিরাজগঞ্জ পর্যন্ত গ্যাস নিয়ে এলো। এরপর বিএনপি সরকার এসে তারেক জিয়া বগুড়া পর্যন্ত গ্যাস দিয়েছে। বর্তমান রাষ্ট্রক্ষমতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি রংপুরের পুত্রবধূ। আমি রংপুরের ছেলে। আমি প্রধানমন্ত্রীকে বলেছি বগুড়া থকে নীলফামারী উত্তরা ইপিজেড পর্যন্ত যাতে গ্যাস আসে সে ব্যবস্থা করার জন্য। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে বগুড়া থেকে উত্তরা ইপিজেড পর্যন্ত গ্যাস নিয়ে আসার সমীক্ষার কাজ শুরু হয়েছে। খুব দ্রুতই রংপুরে গ্যাস আসবে। গ্যাস এলে রংপুরে শিল্পকারখানা গড়ে উঠবে। এতে অনেক বেকারের কর্মসংস্থান হবে। বেকার সমস্যা আর থাকবে না।

ইউনিয়ন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ওমর ফারুকের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ আব্দুল¬াহ মোঃ সালেক, রংপুর শাখার ব্যবস্থাপক কাজী শাহী নুর আলম, রংপুর চেম্বারের সাবেক সভাপতি আবুল কাশেম, চেম্বারের ভাইস প্রেসিডেন্ট মঞ্জুর আহমেদ আজাদ প্রমুখ। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রাইম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. আক্কাস আলী, বিশিষ্ট চিকিৎসক ডা. আবু তালেব, রংপুর মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি মোস্তাফিজার রহমান, রংপুরের ব্যবসায়ী ও সুধিজন।

দুদিনের সফরে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ মঙ্গলবার বিমানে ঢাকা থেকে সৈয়দপুরে আসেন। সেখান তাকে ফুল দিয়ে সম্বর্ধনা জানায় জাতীয় পার্টি রংপুর মহানগর শাখার সভাপতি মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফাসহ অন্যান্যনেতাকর্মীরা। এরপর মোটর শোভা যাত্রাসহকারে তাকে রংপুর সার্কিট হাউসে নিয়ে আসা হয়। আগামীকাল বুধবার সকালে এরশাদ ঢাকার উদ্দেশ্যে রংপুর ত্যাগ করবেন বলে জানান মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য