আলোচনায় থাকার জন্য কী না করেন। আর সোশাল মিডিয়ার যুগে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা কী এমন বড় কাজ মিয়া খলিফার কাছে। এই তো কয়েকদিন আগের কথা।

অনুমতি না নিয়ে তাঁর সঙ্গে সেলফি তুলতে গিয়েছিলেন এক যুবক। সহ্য করেননি মিয়া। এক ঘুষি মেরেছিলেন যুবকের নাকে। মার খাওয়ার ছবি সেই যুবক পোস্ট করেন সোশাল সাইটে। সেবার মিয়াকে নিয়ে কম আলোচনা হয়নি। এবার করে বসলেন আর এক কা-।

বিমানের বাথরুমে গিয়ে তুললেন সেলফি। আর তা পোস্ট করে দিলেন টুইটারে। ব্যাস, আর দেখে কে। ফের আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে মিয়া।

ছবিটিতে কালো পোশাকে দেখা গেছে মিয়াকে। চোখে কালো চশমা। চুল খোলা। মোবাইলের ফ্রন্ট ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে রয়েছেন তিনি। তবে সবথেকে বেশি আলোচনা হয়েছে পরনের প্যান্টটিকে নিয়ে। আসলে প্যান্টটির নকশাটি একটু অন্য ধরনের। কেউ কেউ বলেছেন, ওয়াই-ফাইয়ের সিগন্যালের মতো দেখাচ্ছে নকশাটি।

ভক্ত ফলোয়ারদের কথার উত্তর মিয়া খুব একটা দিয়ে থাকেন না। এই তো প্রথম নয়। আগে একাধিকবার এই ধরনের ছবি পোস্ট করেছেন। তাঁকে নিয়ে বিতর্কও নতুন কিছু নয়। ধর্ম থেকে শুরু করে ব্যক্তিগত জীবনযাপন, ইত্যাদি বিষয়ে মাঝে মাঝে আলোচনার বিষয়বস্তু হয়ে উঠেছেন।

তাঁর মা-বাবাও নাকি জানিয়েছিলেন, মেয়ের সঙ্গে তাঁদের নাকি কোনও সম্পর্ক নেই। তবে সেসব নিয়ে খুব একটা চিন্তিত নন মিয়া। গায়ে মাখেন না সেসব খুব একটা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য