চলতি বছর হজ পালনের জন্য কাতারের যেসব নাগরিক মক্কায় যেতে ইচ্ছুক সৌদি আরব তাদের স্বাগত জানাবে বলে ঘোষণা করেছে।

বুধবার সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সৌদি প্রেস এজেন্সিতে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, হজ পালনে ইচ্ছুক কাতারি নাগরিকদের জন্য দুদেশের মধ্যকার স্থলসীমান্ত পথ সালওয়া পয়েন্ট খুলে দেওয়া হবে, সীমান্ত পার হতে কোনো ইলেকট্রনিক অনুমতিও প্রয়োজন হবে না।

সৌদি আরবের দুটি বিমানবন্দরেও কাতারের হজযাত্রীদের স্বাগত জানানো হবে বলে বিবৃতিতে বলা হয়েছে।

সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে কাতারের শেখ আব্দুল্লাহ বিন আলী বিন আব্দুল্লাহ বিন জসিম আল-থানির বৈঠকের পর বিবৃতিতে এসব সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে সৌদি আরব।

সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোকে সহায়তা এবং আঞ্চলিক প্রতিদ্বন্দ্বী ইরানের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের কারণ দেখিয়ে জুনের প্রথমদিকে কাতারের সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদের ঘোষণা দেয় সৌদি আরব ও মিত্র বাহরাইন, সংযুক্ত আরব আমিরাতে এবং মিশর।

তারপর থেকে সালওয়া পয়েন্টে দুদেশের সংযোগ পথটি বন্ধ করে রাখে সৌদি আরব।

সালওয়া সীমান্ত খুলে দেওয়া সম্পর্কে তাৎক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য করেননি কাতারের একজন মুখপাত্র, তবে শেখ আব্দুল্লাহ কাতারের সরকারের কোনো পদে নেই বলে জানিয়েছেন তিনি।

সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থার প্রতিবেদনটির বিষয়েও তাৎক্ষণিকভাবে কোনো সংবাদ প্রকাশ করেনি কাতারের গণমাধ্যম।

হজকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করে সৌদি আরব ধর্মীয় স্বাধীনতা লঙ্ঘন করছে বলে গত মাসে জাতিসংঘের কাছে অভিযোগ করেছে কাতার। ওই অভিযোগে হজ গমনেচ্ছু কাতারিদের পথে সৌদি আরব বাধা সৃষ্টি করায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছিল দেশটি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য