ভারতের প্রধান বিরোধীদল কংগ্রেসের ভাইস-প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধী আরএসএসের মতাদর্শকে পরাজিত করতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি আজ (বৃহস্পতিবার) দিল্লির কনস্টিটিউশন ক্লাবে বিরোধীদলীয় নেতাদের উপস্থিতিতে এক অনুষ্ঠানে ওই মন্তব্য করেন।

আরএসএসকে উদ্দেশ করে রাহুল গান্ধী বলেন, ‘যতদিন ওরা দেশের ক্ষমতায় আসেনি ততদিন জাতীয় পতাকাকে শ্রদ্ধা জানায় নি। পুলিশ প্রশাসন, জজ, গণমাধ্যম সব জায়গায় ওরা নিজেদের লোক বসাচ্ছে। যেদিন প্রত্যেক সরকারি সংস্থার শীর্ষে আরএসএসের লোকেরা বসবে তখন ওরা আমাদের বলবে এ দেশ আপনাদের নয়।’

রাহুল বলেন, ‘দেশকে দু’ভাবে দেখা যায়। একদল বলে দেশ আমার। আর একদল বলে আমি এই দেশের মানুষ। আরএসএস বলে দেশ আমার, তোমরা এখানকার নও। গুজরাটে দলিতদের পিটিয়ে বলা হচ্ছে তোমরা এ দেশের লোক নও।’

আরএসএস দেশের সংবিধান পরিবর্তন করতে চায় বলে তিনি অভিযোগ করেন।

রাহুল গান্ধী প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে মিথ্যাচারের অভিযোগ করে বলেন, মোদি বলে থাকেন আমাদের স্বচ্ছ ভারত চাই, আমি বলতে চাই আমাদের সত্য ভারত চাই।’

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী সকলের ব্যাংক একাউন্টে ১৫ লাখ টাকা করে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, যা আজ পর্যন্ত কেউ পাননি। উনি ২ কোটি মানুষের চাকরি দেয়ার কথা বলেছিলেন। কিন্তু এ সম্পর্কে যখন সংসদে ওনার মন্ত্রীকে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল তিনি বলেছিলেন, গত বছর এক লাখ লোকের কর্মসংস্থান হয়েছে। এ বছর তো মোদি সরকারের হাল আরো খারাপ। কর্মসংস্থান দেয়ার বদলে কর্মসংস্থানের সুযোগ আরো কমে গেছে।’

রাহুল বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী সব জায়গায় ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’র কথা বলে থাকেন, কিন্তু আপনি যেখানেই যাবেন, ‘মেড ইন চায়না’ দেখতে পাবেন। ওরা এই মিথ্যাকে চেপে যাচ্ছে যে ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ কর্মসূচি সম্পূর্ণ ফ্লপ হয়েছে।’

তিনি বিরোধী নেতাদের উদ্দেশ্যে বলেন, যদি আমরা সকলেই একজোট হতে পারি তাহলে মোদি এবং আরএসএস সরকারকে খুব সহজেই ছুঁড়ে ফেলতে পারব। আজ জেডিইউ’র বিদ্রোহী নেতা শারদ যাদবের নেতৃত্বে ১৭ বিরোধীদলীয় নেতারা ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য