বিরলে বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করে ঘর-বাড়ী তলিয়ে যাওয়ার পর নদী তীরবর্তী বাঁধে আশ্রয় নেয়া মানুষ ঘরে ফেরা শুরু করেছে। বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়া যোগাযোগ ব্যবস্থা সংস্কার কাজ চলছে স্বেচ্ছাশ্রমে। বিদ্যুৎ ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়ার পর পূণরায় চালুর কাজ চলছে।

দিনাজপুর শহরের নিকটবর্তী পূর্ণভবা নদী ও ঢেপা নদীর আশপাশের গ্রামগুলো তলিয়ে গিয়ে আজিমপুর ইউপি, ফরক্কাবাদ ইউপি, ধামইর ইউপি, বিজোড়া ইউপি, পলাশবাড়ী ইউপি, ধর্মপুর ইউপি’র অধিকাংশ গ্রাম এবং বিরলের মধ্যবর্তী তুলাই নদীর আশপাশে মঙ্গলপুর ইউপি, শহরগ্রাম ইউপি, বিরল সদর ইউপি, ভান্ডারা ইউপি’র অনেক গ্রাম ও ভারতসীমান্তবর্তী টাঙ্গন নদীর আশপাশে শহরগ্রাম ইউপি এবং ভান্ডারা ইউপি’র অধিকাংশ গ্রামে বন্যার পানি নেমে যেতে শুরু করলেও বিশুদ্ধ পানির সংকট তীব্র আকার ধারণ করেছে।

দিনাজপুর-বিরল ও দিনাজপুর-বিরল-বোচাগঞ্জ ভায়া কাহারোল-পীরগঞ্জ সড়কে বন্ধ যান-বাহন চলাচল স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে। পাশাপাশি এ অঞ্চলে রেল যোগাযোগ এখনও বন্ধ রয়েছে। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ হতে, রাজনৈতিক দলগুলোর পক্ষ হতে, বিভিন্ন স্বে”ছাসেবী সংগঠনের পক্ষ হতে ও এলাকার বিত্তবান সমাজসেবকদের পক্ষ হতে সহায়তা প্রদানের ব্যবস্থা হলেও যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন থাকায় অনেক স্থানেই এখন পর্যন্ত কোন সহায়তা পৌছেনি। বেশিরভাগ মাটির বাড়ী বিলীন হওয়ার পাশিপাশি ফসলের মাঠ ও পুকুরের মাছ হারিয়েছে কৃষকরা।

পরিস্থিতি মোকাবিলায় সেনাবাহিনী কাজ করছে। উপজেলায় বুধবার দুপুর পর্যন্ত ১০ জনের লাশ উদ্ধার হয়েছে। এরা হলোঃ ১৩ আগস্ট রবিবার রাজারামপুর ইউপি’র হাসিলা গ্রামে একই পরিবারের রহমানের সন্তান রমিজা (১৩), শরীতুল্লাহ শহীদ (১০), মিম আকতার (৭), প্রতিবেশি সায়েদ আলীর পুত্র সিহাব আলী (১০), মালঝাড় গ্রামে সর্পদংশনে বাবুল রায়ের স্ত্রী দিপালী রায় (৩২), ১৫ আগস্ট মঙ্গলবার দুপুরে গড়বাড়ী গ্রামের সুরাই মুর্মুর পুত্র মুচিয়া মুর্মু গট (৬৭), রাণীপুকুর ইউপি’র ছোট চৌপুকুরিয়া গ্রামের শরিফ উদ্দিনের পুত্র সাত্তার (৪০) ও পলাশবাড়ী ইউপি’র ভূতিগাঁও গ্রামের আফছার আলীর পুত্র মফিজুর রহমান (২০), ১৬ আগস্ট বুধবার সকালে দিনাজপুর সদর উপজেলার ষষ্টিতলা (হাড্ডিগোডাউন) এলাকার আনিছুর রহমানের পুত্র আশিক (৯) এর লাশ বিরলের কাঞ্চন নিউ মডেল কলেজ সংলগ্ন পশ্চিমে ও রাণীপুকুর ইউপি’র কাজিপাড়া গ্রামের মিজানুর রহমানের কন্যা মিনি আকতার (৪) এর লাশ উদ্ধার করে।

অপরদিকে, পানি বন্দী বন্যা দূর্গত মানুষের মাঝে উপজেলা প্রশাসন ও সেনাবাহিনী কিছু শুকনা খাবার বিতরণ করেছে যা পরিমাণে অপ্রতুল।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য