কুড়িগ্রামের রাজিবপুর উপজেলায় বন্যা পরিস্থিতি আরও অবনতি হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় বানের পানি বৃদ্ধি পেয়ে উপজেলা শহরের সকল অফিস আদালত ও আবাসিক এলাকায় পানি প্রবেশ করে রাস্তা ঘাট ডুবে গেছে। অধিকাংশ ভবনের নিচের তলায় পানি উঠেছে। ফলে উপজেলা পরিষদ ভবনসহ পুরো এলাকা ৩ ফুট পানির নিচে ভাসছে।

এছাড়া উপজেলা খাদ্য গুদামে পানি প্রবেশ করে ভবনের মেঝেতে পানি ছুঁই ছুঁই করছে। এছাড়া জাউনিয়ার চর উচ্চ বিদ্যালয়,রাজিবপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় সহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কোমড় পানি থেকে গলা পানিতে ভাসছে। প্রধান প্রধান সড়ক ছাড়া সকল পাকা- আধা-পাকা ও কাচাঁ সড়ক পানিতে তলিয়ে যাওয়ার এলাকাবাসি শহরে যেতে পাছেনা।

মঙ্গলবার পর্যপ্ত উপজেলার ৩ ইউনিয়নের জন্য ২৫ মেট্রিক টন চাল বরাদ্ধ পেয়েছেন বলে উপজেলা চেয়ারম্যান শফিউল আলম জানান। তিনি সাংবাদিকদের জানান, তার উপজেলায় যে বন্যা হয়েছে গত ৮৮ সালের বন্যাকে হার মানিয়েছে। তাই সরকারের পাশাপাশি বৃত্তবান ও বে-সরকারি সংস্থাকে বন্যার্তদের পাশে দাড়ানোর জন্য আহবান জানিয়েছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য