মোঃ জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) থেকেঃ আওয়ামী লীগ সরকার বন্যার্তদের পাশে না দাঁড়িয়ে ষোড়শ সংশোধনী নিয়ে রাজনীতি করছে বলে অভিযোগ করেন বিএনপি’র মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ১৫ আগষ্ট মঙ্গলবার দুপুরে সৈয়দপুরে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে তিনি এ অভিযোগ করেন। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ভারতীয় উজানের আসামসহ বিভিন্ন রাজ্য থেকে নেমে আসা পানিতে দেশের উত্তরাঞ্চল প্লাবিত। দিনাজপুরে বন্যায় ১৫ জন, নীলফামারীর সৈয়দপুরে ৩জনের মৃত্যু হয়েছে। আমি ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড়, দিনাজপুর ঘুরে দেখলাম।

বন্যার্ত মানুষ অসহনীয় জীবন-যাপন করছেন। সারাদেশে বন্যায় ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। সরকার বলছে দেশে খাদ্য মজুদ রয়েছে, খাদ্য সংকট নেই। কিন্তু এসব এলাকায় এপর্যন্ত সরকারী কোন ত্রাণ আমার চোখে পড়েনি। সরকার বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ না করে রাজনীতি নিয়ে ব্যস্ত আছে। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) গণমানুষের দল। মানুষের বিপদে-আপদে বিএনপি পাশে দাঁড়ায়। দলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আমি আজ সৈয়দপুরে এসেছি বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ-সহযোগিতা দিতে।

তিনি আরও বলেন, সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি যে রায় দিয়েছেন সে রায় দেশের জনগণের পক্ষে হয়েছে। আওয়ামীলীগ বিশ্বাস করে দেশের আইন স্বাধীন নয়। তাই তারা সুপ্রিম কোর্টের রায় নিয়ে ধু¤্রজাল সৃষ্টির পায়তারা করছে। বর্তমান আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের প্রচলিত আইনের নিয়মনীতি ভঙ্গ করে প্রধান বিচারপতির সাথে দেখা করেছেন। আওয়ামীলীগ কোন সাহসে বিচার বিভাগের ওপর চাপ সৃষ্টি করছে?

সৈয়দপুর পৌরসভার মেয়র আমজাদ হোসেন সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপি’র সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুল গফুর সরকার, চিরিরবন্দরের সাবেক এমপি আলহাজ্ব আখতারুজ্জামান মিয়া, পৌর প্যানেল মেয়র জিয়াউল হক জিয়া, পৌর কাউন্সিলর ও বিএনপি নেতা শাহীন আকতার শাহীন, ১৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবিদ হোসেন লাড্ডান, বিএনপি নেতা কাজী একরামুল হক প্রমুখ।

ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে উপজেলার বাঁশবাড়ী, মিস্ত্রিপাড়া ও সৈয়দপুর কলেজপাড়া এলাকার প্রায় পাঁচ শতাধিক বন্যার্তর মাঝে চাল বিতরণ করা হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য