খোলামেলা ছবি দিয়েছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। সে কারণে ট্রোলড হয়েছেন অভিনেত্রী এষা গুপ্তা। অসম্মানজনক কমেন্টও এসছে বেশ কিছু। তবে সে সব কমেন্ট সোশ্যাল ওয়াল থেকে সরিয়ে নিলেও সরাননি নিজের সে সব ছবি। এ বার সরাসরি সমালোচনার জবাব দিলেন এষা।

এষার কথায়, ‘‘এটা আমার শরীর। আমার ছবিগুলো নান্দনিক ভাবেই তোলা। খুব সূক্ষ্ম একটা লাইন পার হলে সেটাকে ভালগার বলে। এগুলো তা নয়। আমার ছবি নিয়ে কাদের এত সমস্যা?’’

২০১৬-এ মুক্তিপ্রাপ্ত অক্ষয় কুমারের ‘রুস্তম’-এ নজর কেড়েছিলেন এষা। তাঁর পরের ছবি অজয় দেবগণের সঙ্গে ‘বাদশাহ’। মুক্তি পাবে আগামী ১ সেপ্টেম্বর। তিনি মনে করেন, তারকাদের ক্ষেত্রে সোশ্যাল মিডিয়া যেন আরও বেশি আক্রমণাত্মক। তিনি বলেছেন, ‘‘আমাদের দেশে মেয়েদের সবসময়ই দোষারোপ করা হয়।

আসলে যে কোনও সুযোগে কোনও সেলেব্রিটিকে ছোট করতে পারলে খুব খুশি হয় এরা। আমি যখন মডেলিং করতাম বহুবার এ ধরনের শুট করেছি। টপলেস হয়েছি। সম্পূর্ণ নগ্ন হয়েও ফটোশুট করেছি। তখন তো এসব নিয়ে কেউ প্রশ্ন করেনি।’’

তবে এষা প্রথম নন। এর আগে বিভিন্ন সময় সোশ্যাল মিডিয়ায় দীপিকা পাড়ুকোন, প্রিয়ঙ্কা চোপড়া, সোহা আলি খান, সানি লিওন, ফতিমা সানা শেখকে ওয়েব ওয়ার্ল্ডে বডি শেমিং ফেস করতে হয়েছে। তালিকাটা দীর্ঘ। প্রত্যেকেই নিজের মতো করে বডি শেমিংয়ের প্রতিবাদও করেছেন। তবুও বলি মহলের একটা বড় অংশের মতে, এ নীতি পুলিশি এত সহজে থামার নয়!

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য