উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে আমেরিকার সম্পর্কে তীব্র উত্তেজনার মধ্যে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ’র পরিচালক বলেছেন, অচিরেই পিয়ংইয়ংয়ের সঙ্গে ওয়াশিংটনের পরমাণু যুদ্ধের কোনো আশঙ্কা নেই।

মাইক পম্পেও আরো বলেছেন, উত্তর কোরিয়ার সমরাস্ত্র কর্মসূচি ‘উদ্বেগজনক গতিতে’ এগিয়ে যাচ্ছে এবং পিয়ংইয়ং আরেকটি ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালালেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। তিনি সতর্ক করে দিয়ে বলেন, আমেরিকার ‘কৌশলগত ধৈর্যের বাধ’ ভেঙে যাচ্ছে।

উত্তর কোরিয়া ও আমেরিকা সাম্প্রতিক সময়ে পরস্পরের বিরুদ্ধে প্রচণ্ড বাকযুদ্ধে লিপ্ত হয়েছে এবং মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প উত্তর কোরিয়াকে ‘ক্ষোভের আগুনে’ পুড়িয়ে মারার হুমকি দিয়েছেন।

সিআইএ প্রধান এ সম্পর্কে আরো বলেন, তিনি এ ব্যাপারে ‘পুরোপুরি নিশ্চিত’ যে, উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন সমরাস্ত্র কর্মসূচির প্রসার ঘটিয়ে যাবেন। পিয়ংইয়ং ক্ষেপণাস্ত্রের মাধ্যমে আমেরিকায় পরমাণু অস্ত্র দিয়ে হামলা চালানোর সক্ষমতা অর্জন থেকে কতদূরে রয়েছে-এমন প্রশ্নের জবাবে পম্পেও বলেন, তারা সে সক্ষমতার ‘কাছাকাছি’ পৌঁছে গেছে।

ফক্স নিউজকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি আরো বলেন, “তারা উদ্বেগজনক গতিতে সেদিকে এগিয়ে যাচ্ছে।”

সম্প্রতি উত্তর কোরিয়া পরপর দু’টি আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্র বা আইসিবিএমের পরীক্ষা চালানোর পর আমেরিকার সঙ্গে দেশটির উত্তেজনা চরমে পৌঁছায়। এরমধ্যে দ্বিতীয় ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়ে পিয়ংইয়ং দাবি করে, আমেরিকার যেকোনো জায়গায় হামলা চালানোর সক্ষমতা অর্জন করেছে দেশটি। মার্কিন পর্যবেক্ষকরা উত্তর কোরিয়ার এই দাবির সত্যতা স্বীকার করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য